বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

শ্যালিকার বিয়েতে এসে ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যু, স্বজনদের শোকের মাতন

আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০:৩৪

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে শ্যালিকার বিয়ে অনুষ্ঠানে এসে দুলাভাই (জামাইবাবু) বিকাশ চন্দ্র সরকার (৪২) নামের এক ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকালে উপজেলার দক্ষিণ বড়ভিটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

গায়ে হলুদের দিনে বুকের ব্যথা অনুভব হলে শ্বশুড়বাড়ির লোকজন দ্রুত ফুলবাড়ি হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ভারতীয় নাগরিককে মৃত ঘোষণা করেছেন মেডিকেল অফিসার ডা. নাজমিন আক্তার। 

এ দিকে একমাত্র শ্যালিকার গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে দুলাভাইয়ের মৃত্যুর ঘটনায় বিয়ে বাড়িসহ এলাকায় চলছে শোকের ছায়া। বাগরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন স্ত্রী শেফালী রানী ও একমাত্র শ্যালিকা কাকলী রানীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন। নিহত ভারতীয় নাগরিকের বাড়ি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার জেলার পুন্ডীবাড়ী থানার দক্ষিণ খাপাইটারী গ্রামে। তিনি ওই এলাকার মিলন চন্দ্র সরকারের ছেলে। ভারতীয় নাগরিকের লাশ ফুলবাড়ী হাসপাতাল থেকে রোববার রাত ১১টার দিকে শ্বশুড়বাড়িতে নেওয়া হয়েছে।

নিহত বিকাশ চন্দ্র রায়ের চাচা শ্বশুর ক্ষিতিশ চন্দ্র রায় ও প্রতিবেশী দাদা শ্বশুর কিশোরী চন্দ্র রায় জানান, শ্যালিকার বিয়ে উপলক্ষে গত ১৭ দিন আগে জামাই বিকাশ চন্দ্র সরকার তার স্ত্রী শেফালী রানী রায় (৩৬) ও তিন বছর বয়সী ছেলে বিবেক চন্দ্র সরকারসহ তার শ্বশড়বাড়িতে আসেন। বিয়ে অনুষ্ঠানে এসে এভাবে হঠাৎ পৃথিবী ছেড়ে চলে যাবেন এটা মানতে কষ্ট হচ্ছে। 

ফুলবাড়ী থানার ওসি প্রাণকৃষ্ণ দেবনাথ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ভারতীয় নাগরিকের লাশ তার শ্বশুড়বাড়িতে আছে। কোন প্রক্রিয়ায় লাশ ভারতে যাবে বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিব্বির আহমেদ জানান, পার্সপোট ভিসা করে বাংলাদেশে আসা ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যুর বিষয়টি জেলা প্রশাসক জানানো হয়েছে। পাশাপাশি ফুলবাড়ী সীমান্তের লালমনিরহাট ১৫ ব্যাটালিয়নের অধীন বিজিবির সদস্যদের মাধ্যমে ভারতীয় বিএসএফকে ভারতীয় নাগরিকের লাশ ফেরত দেওয়ার বিষয়ে রাতে জানানো হয়েছে। সোমবার সকাল ৯টা পর্যন্ত বিএসএফের পক্ষ থেকে কোন সংবাদ পাওয়া যায়নি। তবে আশাকরছি দুপুরের মধ্যে লাশ ফেরত নেওয়ার বিষয়ে প্রক্রিয়া অব্যাহত আছে।

ইত্তেফাক/পিও