বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

মোনাম মুন্নার মৃত্যুবার্ষিকীতে সানজিদার আবেগঘন বার্তা

আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫:৪৯

বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক ডিফেন্ডার মোনেম মুন্নার মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ২০০৫ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি না ফেরার দেশে পাড়ি জমান কিংব্যাক খ্যাত মুন্না। মৃত্যুবার্ষিকীতে মুন্নাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের ফরোয়ার্ড সানজিদা আক্তার।

ইস্ট বেঙ্গলের হয়ে খেলতে বর্তমানে ভারত অবস্থান করছেন সানজিদা। সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে নারী দলের এই ফরোয়ার্ড লেখেন, ‘"সে হয়তো ভুলবশত বাংলাদেশে জন্মগ্রহণ করেছে।" কথাটি বলেছিলেন জার্মান কোচ অটো ফিস্টার। যাকে ঘিরে এই ভারি কথাটি বলেছিলেন তিনি মুনেম মুন্না। বাংলাদেশের মানুষ যাকে "কিং ব্যাক" নামে চেনে। আজ উনার মৃত্যুবার্ষিকী।’

সানজিদা আরও লেখেন, ‘মাত্র ২০ বছর বয়সে জাতীয় দলে অভিষেক হয়ে সাফ রানার্স আপ সহ দেশের হয়ে প্রথম আন্তর্জাতিক শিরোপা অর্জন করেছিলেন। রেকর্ড ব্রেকিং ট্রান্সফার, ফুটবল মাঠ থেকে বিজ্ঞাপন, দেশের বাইরের ক্লাবে এসে সুখ্যাতি অর্জন সবই করেছেন তিনি। অল্পদিনের মধ্যেই এতকিছু অর্জন করে অসুস্থতাজনিত কারণে মাত্র ৩১ বছর বয়সে ফুটবল কে বিদায় জানান এবং ৩৮ বছর বয়সে দুনিয়াকে বিদায় জানান। খুব দ্রুত চলে যাবেন বলেই হয়তো সুখ্যাতি, জনপ্রিয়তা, ট্রফি সহ সবকিছু অর্জন করতে বড্ড তাড়াহুড়ো ছিলো উনার।’

সানজিদা লেখেন, ‘ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবে এসে যখন উনার ছবি দেখেছিলাম, তখন খুব গর্বিত হয়েছি। আমার অগ্রজ, আমাদের হিরো, তিনি একান্তই আমাদের। দেশের এরকম সূর্যসন্তানদের স্মৃতি যথাযথভাবে ধরে রাখা এবং অক্ষুণ্ণ রাখার ব্যবস্থা থাকা উচিত বলে মনে করি। পাইওনিয়ারে শান্তিনগর ক্লাবের হয়ে ক্যারিয়ার শুরু করা এই কিংবদন্তি হয়তো কিছুটা হলেও এতে শান্তি পাবেন। অগ্রজদেরকে সম্মানিত করা এবং স্মরণ করার রীতি থেকে আমরা সরে গেলে, অদূর ভবিষ্যতে আমরাও পরবর্তী প্রজন্মের নিকট কিছু আশা করতে পারি না। আল্লাহ তায়ালা, উনাকে জান্নাতবাসী করুন। আমিন।’

ক্যারিয়ারের দীর্ঘ সময় কাটিয়েছেন ঢাকার ঐতিহ্যবাহী ক্লাব আবাহনীতে কাটিয়েছেন মুন্না। ১৯৯১–৯২ মৌসুমে, তিনি ভারতীয় ক্লাব ইস্টবেঙ্গলে যোগ দেন। দ্বিতীয় বাংলাদেশী ফুটবলার হিসেবে দেশের বাইরে পেশাদার লীগে খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন এই কীর্তি ফুটবলার। 

ইত্তেফাক/জেডএইচ