বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

প্রধানমন্ত্রিত্ব ভাগাভাগি শর্তে পাকিস্তানে হতে পারে জোট সরকার

আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:৫৯

পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) ও পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) ক্ষমতা ভাগাভাগি চুক্তির অধীনে পাঁচ বছরের জন্য সরকার গঠনের সম্ভাব্য আলোচনা করেছে বলে জানিয়েছে জিও নিউজ। এর ফলে উভয় দল থেকে তিন ও দুই বছরের জন্য প্রধানমন্ত্রী হতে পারে।

কেন্দ্র ও প্রদেশে জোট সরকার গঠনের প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে ৮ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনের পর রোববার তাদের প্রথম বৈঠকে অর্ধেক মেয়াদের জন্য প্রধানমন্ত্রী নিয়োগের ধারণাটি আলোচনা করা হয়েছিল। সংশ্লিষ্ট সূত্র জিও নিউজকে বিষয়টি জানিয়েছে।

২০১৩ সালে বেলুচিস্তানে পিএমএল-এন এবং ন্যাশনাল পার্টি (এনপি) একই পন্থায় ক্ষমতা ভাগাভাগি করেছিল। তখন দুটি দলের দুই মুখ্যমন্ত্রী আড়াই বছর করে পাঁচ বছরের মেয়াদ পূর্ণ করেছিলেন।

লাহোরের বিলাওয়াল হাউজে রোববারের বৈঠকে দুই পক্ষই সাধারণ নির্বাচনের পর দেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার জন্য সহযোগিতা করতে নীতিগতভাবে সম্মত হয়েছে।

বৈঠকে পিপিপি-পার্লামেন্টারিয়ান প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারি, পিপিপি চেয়ারম্যান বিলাওয়াল-ভুট্টো জারদারি ও পিএমএল-এন থেকে সাবেক প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ উপস্থিত ছিলেন।

পরে জারি করা যৌথ বিবৃতি অনুসারে, বৈঠকটি একটি সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এতে জাতির স্বার্থ ও মঙ্গলকে সবকিছুর ঊর্ধ্বে রাখার অঙ্গীকার ব্যক্ত করা হয়েছিল।

উভয় দলের নেতারা বিরাজমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট এবং দেশের উন্নতির জন্য সহযোগিতামূলক প্রচেষ্টার অপরিহার্যতা নিয়ে একান্ত আলোচনা করেছেন।

পিএমএল-এন প্রতিনিধি দলে ছিলেন আজম নাজির তারার, আয়াজ সাদিক, আহসান ইকবাল, রানা তানভীর, খাজা সাদ রফিক, মালিক আহমেদ খান, মরিয়ম আওরঙ্গজেব ও শেজা ফাতিমা।

যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আলোচনার মূল বিষয়গুলো ছিল পাকিস্তানের সামগ্রিক পরিস্থিতির মূল্যায়ন, ভবিষ্যৎ রাজনৈতিক কৌশল নিয়ে আলোচনা এবং বোর্ড জুড়ে স্থিতিশীলতা ও অগ্রগতি প্রচারের লক্ষ্যে সুপারিশ বিনিময়।

উভয় দলই পাকিস্তানকে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা থেকে দূরে সরিয়ে সমৃদ্ধি ও স্থিতিস্থাপকতার পথের দিকে নিয়ে যাওয়ার জন্য তাদের নিবেদন নিশ্চিত করেছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ দল দুটি দলকে ম্যান্ডেট দিয়েছে এবং তারা তাদের হতাশ করবে না।

ইত্তেফাক/এসএটি