বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

সহ-অধিনায়কের নামও ঘোষণা করা হবে শিগিগরই

টাইগারদের নতুন নেতা শান্ত

আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪:০১

গেল বছর এশিয়া কাপের আগে তামিম ইকবাল ওয়ানডে দলের অধিনায়ত্ব ছাড়ার পর জাতীয় দলের তিন ফরম্যাটের নেতৃত্বের ভার দেওয়া হয় সাকিব আল হাসানের কাঁধে। যদিও পরে বিশ্বকাপের জন্য দেশ ছাড়ার আগে সাকিব এক সাক্ষাত্কারে জানিয়েছিলেন, এই টুর্নামেন্টের পর আর তিনি অধিনায়কত্ব করবেন না। তখন থেকেই আলোচনা চলছিল সাকিবরের পর কাকে টাইগারদের নেতা হিসেবে দেখা যাবে। সে সময় নেতা হওয়ার সম্ভাব্য দৌড়ে রাখা হয়েছিল লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত এবং মেহেদী হাসান মিরাজকে। 

তবে গেল ডিসেম্বর মাসে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে শান্তর নেতৃত্ব ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে টাইগারা। এর আগের মাসে ঘরের মাটিতে কিউইদের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট জয়ের স্বাদ পায় টাইগাররা। তখনই একপ্রকার নিশ্চিত হয়ে যায়, দলের ভবিষ্যৎ নেতা হতে যাচ্ছেন তিনি। বাকি ছিল শুধু আনুষ্ঠানিক ঘোষণার অপেক্ষা। এবার গতকাল সেটাও বিসিবি দশম বোর্ড সভা শেষে হয়ে গেল। এখন টাইগারদের তিন ফরম্যাটের নেতা শান্ত।

গতকাল সোমবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালনা পর্ষদের সভায় শান্তকে টাইগারদের তিন ফরম্যাটের নেতা হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়। পরে সভা শেষে সাংবাদিকদের সামনে আনুষ্ঠানিকভাবে শান্তর নেতৃত্ব পাওয়ার কথা ঘোষণা করেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘দলের নতুন অধিনায়ক কে হবেন, সেটা ঠিক করতে আমাদের একটু সময় বেশি গিয়েছে। আজকের এই সভায় নাজমুল হোসেন শান্তকে এই বছরের জন্য অধিনায়কের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।’

নাজমুল হাসান শান্ত।

সেই সঙ্গে জাতীয় দলের শান্তর সহযোগী কে হবেন এমন প্রশ্নের জবাবে বিসিবি বস বলেন, ‘দলের নতুন যুক্তিতে জায়গা হয় মোট ২১ জন ক্রিকেটারের। সব খেলোয়াড় সব ফরম্যাটে থাকবে কি না, সেটা নিশ্চিত না। তবে আমরা মোটামুটি ঠিক করে ফেলেছি সহ-অধিনায়ক কে হবে। তবে নির্দিষ্ট সিরিজে কে থাকছে, সেটার ওপর নির্ভর করছে সহ-অধিনায়ক কে হবে। এটা আমরা একটু সময় নিচ্ছি, আমরা চাইলে এখন বলে দিতে পারি দুটো ফরম্যাটের সহ-অধিনায়ক কে হবেন। তারপরেও আমরা একটু সময় নিচ্ছি। তবে আপনাদেরকে খুব শিগিগরই জানিয়ে দেওয়া হবে।’

এদিকে নতুন অধিনায়কত্বের প্রসঙ্গে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের সঙ্গে কোনো আলাপ হয়েছে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে বিসিবি বস বলেন, ‘কালকে পর্যন্ত সাকিরে সঙ্গে যে কথা হয়েছে। ওর চোখের সমস্যাটা এখনো যায়নি। সামনে আমাদের টানা দুটো সিরিজ আছে এরপরই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ওর উপস্থিতি এখন চূড়ান্ত না। তবে সে অধিনায়ক হিসেবে সমসময় আমাদের প্রথম পছন্দ। আগেও ছিল এখনো আছে। তবে দুঃখজনক যে, সে একটা সমস্যায় পড়েছে। তাই আমরা এই বিষয়টা দেরি করতে চাই নাই। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আর বেশি সময় নেই। এই সময়টার মধ্যে যেন দল ভালোভাবে চলতে পারে সেই জন্য নতুন অধিনায়কের নামটা আমরা ঘোষণা করে দিয়েছি।’

শান্তর অধিনায়কত্বের অভিষেক বিশ্বকাপের আগে। ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডেতে ঐ সিরিজের অধিনায়ক লিটন কুমার দাসের বিশ্রামে প্রথম নেতৃত্ব দেন শান্ত। এছাড়া তিন সংস্করণ মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ১১ ম্যাচে বাংলাদেশের অধিনায়কত্ব করেছেন বাঁহাতি টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যান। তার নেতৃত্বে খেলা একমাত্র টেস্টে কিউইদের হারিয়েছে বাংলাদেশ। এছাড়া ওয়ানডেতে ছয় ম্যাচে ও টি-টোয়েন্টিতে তিন ম্যাচে জয় একটি করে।

ইত্তেফাক/জেডএইচ