বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

সরকারি পদ ছেড়ে দিলেন মিমি

আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭:৫৩

সরকারি পদকে বিদায় জানালেন টালিউড অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। লোকসভা ভোটের ঠিক আগে যাদবপুরের ‘জনপ্রতিনিধি’ রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারপার্সনের পদ ছাড়লেন তিনি।

হিন্দুস্তান টাইমস বাংলার প্রতিবেদন অনুযায়ী, ৩৫ তম জন্মদিন শেষে ক্যারিয়ারের বড় সিদ্ধান্ত নিলেন তৃণমূলের তারকা সাংসদ মিমি। নলমুড়ি আর জিরানগাছা ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারপার্সনে ছিলেন এই অভিনেত্রী। ইতিমধ্যেই ইস্তফাপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন তারকা সাংসদ। কিন্তু কেন এই সরকারি পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন মিমি, তা স্পষ্ট নয়। 

তার পদত্যাগপত্রে বড়বড় হরফ লেখা রয়েছে , ‘২০১৯ থেকে ’২৪ পর্যন্ত আমার সাংসদ পদের মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে। আপনাদের যে সমর্থন আমি পেয়েছি, তার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। আমি চেয়ারপার্সন হিসাবে চিকিৎসক, নার্স এবং সর্বোপরি রোগীদের কল্যাণার্থে কাজ করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি।’ 

২০১৯ সালে তৃণমূলের টিকিটে যাদবপুর থেকে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছিলেন মিমি। প্রায় ২ লক্ষ ২২ হাজার ৪৯৯ ভোটে জিতেছিলেন তিনি। কিন্তু মিমি সাংসদ হিসাবে পাঁচ বছরে কতটা সফল সেই নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। দ্বিতীয়বার কি ভোটের টিকিট পাবেন তিনি? মিমি নিজে কি ফের ভোট ময়দানে নামতে প্রস্তুত? জল্পনা জারি রয়েছে। 

মিমিকে বাংলা সিনেমার পর্দায় শেষ দেখা গিয়েছে শিবপ্রসাদ-নন্দিতার ‘রক্তবীজ’ ছবিতে। গত বছরই মুক্তি পেয়েছে মিমি অভিনীত প্রথম হিন্দি ছবি ‘শাস্ত্রী বিরুদ্ধ শাস্ত্রী’।  

 

ইত্তেফাক/পিএস

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন