সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ধর্ষণ মামলায় এএসপি প্রিন্সের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫:৪১

ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় সাময়িক বরখাস্ত হওয়া সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) সোহেল উদ্দীন প্রিন্সের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) মামলার শুনানি শেষে ঢাকার-৬ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আল মামুন এ আদেশ দেন। বাদীপক্ষের আইনজীবী আনোয়ারুল কবির বাবুল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, এদিন মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। আসামি মামলার দায় থেকে অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করেন। একইসঙ্গে তিনি আদালতের নিকট ন্যায়বিচার প্রার্থনা করেন। শুনানি শেষে বিচারক অব্যাহতির আবেদন নাকচ করে অভিযোগ গঠনের এ আদেশ দেন।

এর আগে ২০২২ সালের ২৩ নভেম্বর সোহেল উদ্দিন প্রিন্সের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলাটি করেন ভুক্তভোগী এক নারী। গত বছরের ২৫ জুলাই একই বিচারক মামলার বিচারবিভাগীয় তদন্ত প্রতিবেদন গ্রহণ করে তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। সোহেল উদ্দিন প্রিন্স বর্তমানে বরখাস্ত অবস্থায় আছেন। তিনি ৩৬তম বিসিএস পরীক্ষার মাধ্যমে পুলিশে যোগ দেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী ওই নারীও একজন সরকারি কর্মকর্তা। পরিচয়ের সুবাদে এএসপি সোহেল উদ্দীনের সঙ্গে ভুক্তভোগীর বিয়ের কথা হয়। ২০২১ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি সোহেল উদ্দীন ভু্ক্তভোগীকে রমনা পুলিশ অফিসার্স মেসে আসতে বলে। সেখানে তার আত্মীয়-স্বজন উপস্থিত থেকে কাজির মাধ্যমে বিবাহ হবে বলে জানায় ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

ভুক্তভোগী ওইদিন সন্ধ্যা ৭টায় তার আত্মীয়-স্বজনসহ রমনা পুলিশ অফিসার্স মেসে উপস্থিত হয়ে সোহেল উদ্দীন ছাড়া আর কাউকে দেখতে না পাননি। এ সময় সোহেল জানায় কিছুক্ষণের মধ্যে সবাই এসে যাবে। সরল বিশ্বাসে ভুক্তভোগী আলাপচারিতা করতে থাকেন। একপর্যায়ে সোহেল উদ্দিন ভুক্তভোগীকে খুন করার ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

ইত্তেফাক/এবি