বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

বাইডেনকে পছন্দ পুতিনের

আপডেট : ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪:৫৩

ডোনাল্ড ট্রাম্প নন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেনকেই দেখতে চান রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। কারণ, তার মতে, ট্রাম্পের তুলনায় বাইডেন ‘অনেক বেশি অনুমানযোগ্য’। তবে আগামীতে যে-ই মার্কিন প্রেসিডেন্ট হোন, তার সঙ্গে ক্রেমলিন কাজ করতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট। খবর রয়টার্সের।

আগামী নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এতে ডোনাল্ড ট্রাম্পের জেতার সম্ভাবনা রয়েছে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে জনমত জরিপগুলো।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) পুতিনের কাছে এক সাংবাদিক জানতে চেয়েছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে কাকে জয়ী দেখতে চায় রাশিয়া। জবাবে রুশ প্রেসিডেন্ট বাইডেনের নাম বলেন। কারণ, ৮১ বছর বয়সী এ নেতা ‘অনেক বেশি অভিজ্ঞ, অনুমানযোগ্য। তিনি একজন গতানুগতিক রাজনীতিবিদ’।

এসময় বাইডেনের বয়স ও স্বাস্থ্য সম্পর্কিত উদ্বেগ উড়িয়ে দেন পুতিন। তিনি বলেন, তিন বছর আগে বাইডেনের সঙ্গে আমার যখন সাক্ষাৎ হয়, তখন মানুষজন তার অক্ষমতা নিয়ে কথা বলছিল। কিন্তু আমি তেমন কিছু দেখিনি।

নির্বাচনের কয়েকদিন পরেই ৮২ বছরে পা দেবেন যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান প্রেসিডেন্ট। জনমত জরিপগুলো বলছে, বাইডেনের বয়স নিয়ে গুরুতর উদ্বেগ রয়েছে মার্কিন ভোটারদের।

সাম্প্রতিক দুটি ঘটনা তার বয়সজনিত বিতর্ক আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। কিছুদিন আগে মৃত পূর্বসূরীদের সঙ্গে ইউরোপীয় নেতাদের নাম গুলিয়ে ফেলেছিলেন বাইডেন।

এছাড়া, রাষ্ট্রীয় গোপন নথি ঠিকমতো না রাখতে পারা সংক্রান্ত এক তদন্ত প্রতিবেদনে জো বাইডেনকে ‘দুর্বল স্মৃতিশক্তির বৃদ্ধ’ বলে উল্লেখ করা নিয়েও ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে। প্রেসিডেন্টের সক্ষমতা নিয়ে কথা বলতে হয়েছিল হোয়াইট হাউজকে।

ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাইডেন নিজেও। তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের পর রীতিমতো সংবাদ সম্মেলন করে প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, তার স্মৃতিশক্তি যথেষ্ট ভালো আছে। কিন্তু এরপরেই আবার মিশর ও মেক্সিকোর প্রেসিডেন্টদের নাম গুলিয়ে ফেলেন তিনি।

অবশ্য, বাইডেনের সম্ভাব্য প্রতিদ্বন্দ্বী ডোনাল্ড ট্রাম্পও মানুষের নাম বলতে গিয়ে বেশ কয়েকবার গড়মিল করে ফেলেছেন। সম্প্রতি ৭৭ বছর বয়সী এ রিপাবলিকান নেতা প্রেসিডেন্ট প্রার্থিতার ক্ষেত্রে তার সবশেষ প্রতিদ্বন্দ্বী নিকি হেইলির সঙ্গে সাবেক হাউজ স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির নাম গুলিয়ে ফেলেছিলেন।

কিন্তু তা সত্ত্বেও হোয়াইট হাউজের ক্ষমতায় আবারও বাইডেনকেই দেখতে চান রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন।

ইত্তেফাক/এনএন