সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ডিক্যাব টকে রুশ রাষ্ট্রদূত

শেখ হাসিনার সঙ্গে জেলেনস্কির বৈঠকে চিন্তিত নয় রাশিয়া

আপডেট : ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭:১৪

জার্মানির মিউনিখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির দ্বিপক্ষীয় বৈঠক নিয়ে রাশিয়া চিন্তিত নয় বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার মন্টিটস্কি।

বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে ডিপ্লোমেটিক করেসপন্ডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন (ডিক্যাব)-এর সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকটিকে জেলেনস্কির ভণ্ডামি ছাড়া কিছু নয় উল্লেখ করে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার মন্টিটস্কি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে জার্মানিতে ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বৈঠক করতে চেয়েছেন। ওই বৈঠকে নিজের ফর্মুলা নয় বরং জেলেনস্কি পশ্চিমা ফর্মুলা দেবেন। যা তার ভন্ডামি ছাড়া আর কিছু নয়।

রাশিয়া বাংলাদেশকে ভারতের চোখে দেখে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, ঢাকা নিয়ে মস্কোর নিজস্ব নীতিমালা রয়েছে। ঠিকমতো সমঝোতা করতে পারলে ভারতের মতো বাংলাদেশেও কম দামে তেল গ্যাস সরবরাহ করবে রাশিয়া। তবে এ নিয়ে এখনো আগ্রহ দেখায়নি ঢাকা।

‘সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়’ বাংলাদেশের এই পররাষ্ট্রনীতিকে রাশিয়া সবসময় সমর্থন করে বলে জানান রাষ্ট্রদূত। তিনি বলেন, আমাদের অবস্থান হচ্ছে বাংলাদেশ কী করবে সেটি যুক্তরাষ্ট্র বা পশ্চিমা দেশগুলোর বলা উচিত নয়। বাংলাদেশিরা ঠিক করবে কার সঙ্গে কীভাবে সম্পর্ক রাখবে এবং এটি বাংলাদেশের ইচ্ছার ওপর নির্ভর করবে। বাংলাদেশে হস্তক্ষেপ করা তাদের উচিত নয়।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়ে তিনি বলেন, আমাদের অবস্থান খুব স্পষ্ট। আমরা দ্রুত প্রত্যাবাসনের পক্ষে। কিন্তু মিয়ানমারের যা পরিস্থিতি তাতে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন কবে শুরু হবে তা ধারণা করা মুশকিল, তবে রাশিয়াও দ্রুত প্রত্যাবাসনের পক্ষে রয়েছে।

মন্টিটস্কি বলেন, পরিতাপের বিষয় হলেও সত্য, কোনা কোনো পশ্চিমা রাষ্ট্র বাংলাদেশের স্বপ্নের প্রকল্প রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রকেও প্রশ্নবিদ্ধ করার অপচেষ্টা করছে।

এর আগে আজ সকালে মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগ দিতে জার্মানির উদ্দেশে দেশ ছেড়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৪ দিনের সফরে কয়েকটি দেশের রাষ্ট্রপ্রধানের পাশাপাশি ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গেও বৈঠক করবেন তিনি। 

প্রধানমন্ত্রী এ সময় ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টকে যুদ্ধ বন্ধের আহ্বান জানাবেন বলে জানায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তবে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠকের কারণে রাশিয়া-বাংলাদেশ দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে কোনো প্রভাব পড়বে না বলেও জানান মন্ত্রী।

এ সফর নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানায়, সম্মেলনের পাশাপাশি এ সফরে প্রধানমন্ত্রী জার্মানির চ্যান্সেলর, ডেনমার্ক ও নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গেও বৈঠক করবেন। আলোচনা হবে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির সঙ্গেও।  সফরে ভারত ও ব্রিটেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গেও বৈঠকের কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর।

ইত্তেফাক/এবি