সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় তিন জনের মৃত্যু

আপডেট : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০২:৩০

দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন আরও চার জন। সোমবার এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

তালা (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা জানান, তালায় ভ্যান থেকে পড়ে রোকেয়া খাতুন (৫৫) নামের এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।  বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে আঠারোমাইল-পাইকগাছা সড়কের তালা উপজেলার জাতপুর সমকাল মাধ্যমিক বিদ্যাপীঠের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত রোকেয়া খাতুন তালা সদর ইউনিয়নের আগোলঝাড়া গ্রামের আব্দুল হাকিম শেখের স্ত্রী। ভ্যান থেকে পড়ে  গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। তালা সদর ইউপি চেয়ারম্যান সরদার জাকির হোসেন মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পাটগ্রাম (লালমনিরহাট) সংবাদদাতা জানান, পাটগ্রামে সকালে সড়ক দুর্ঘটনায় আমিনুর রহমান নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। পুলিশ জানায়, বেলা ১১টার দিকে বুড়িমারী ইউনিয়নের উফারমারা গ্রামের নিজ বাড়ি হতে মোটরসাইকেলে তিন আরোহীসহ ঘুন্টি বাজার এলাকা যাচ্ছিলেন আমিনুর। এ সময় বুড়িমারী স্থলবন্দর থেকে ঢাকা মহাসড়ক অতিক্রম করার সময় পাথরবাহী লরির পেছনের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান তিনি। এ ঘটনায় মোটরসাইকেলচালক মতিজুল ইসলাম ও অপর আরোহী করিদুল ইসলাম আহত হন।

পাটগ্রাম থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, লরির চালক ও সহযোগী চালক পলাতক রয়েছে। সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত আমিনুর রহমানের লাশের সুরতহাল ও আইনি ব্যবস্থা হাতীবান্ধা হাইওয়ে থানাপুলিশ নিবেন। লরিটি হাতীবান্ধা হাইওয়ে থানাপুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

আদমদীঘি (বগুড়া) সংবাদদাতা জানান, আদমদীঘিতে ট্রলির পেছনে ধাক্কা লেগে সিএনজির যাত্রী আসমা বিবি নিহত হয়েছেন। ভোরে বগুড়া-নওগাঁ মহাসড়কের আদমদীঘির শিবপুর নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আসমা বিবি বগুড়ার গাবতলীর কাকইল গ্রামের টুকুর স্ত্রী।

পুলিশ জানায়, ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সিএনজিযোগে আসমা বিবি ও তার ছেলে রাজু আহম্মেদ নওগাঁর রানীনগর থেকে সিএনজিযোগে বগুড়ায় যাচ্ছিলেন। আদমদীঘির শিবপুর নামক স্থানে  দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাক বহনের ট্রলির পেছনে ধাক্কা লেগে সিএনজি চালকসহ মা-ছেলে আহত হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে নিলে কর্মরত চিকিৎসক আসমা বিবিকে মৃত ঘোষণা করেন। আদমদীঘি থানার এসআই প্রদীপ কুমার বিষটি নিশ্চিত করেছেন।

ইত্তেফাক/এমএএম