বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

পিটিআই প্রধানের পদ থেকে সরানো হলো গোহরকে

আপডেট : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২১:৫২

অসন্তোষজনক পারফরম্যান্সের কারণে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) এর চেয়ারম্যান পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলো ব্যারিস্টার গোহর আলী খানকে। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) এমনটাই দাবি করেছেন পিটিআইয়ের আরেক নেতা শের আফজাল মারওয়াত। খবর পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের।

পিটিআইয়ের পরবর্তী চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ব্যারিস্টার আলী জাফরের নাম ঘোষণা করার একদিন পর গোহরকে সরানোর এ ঘোষণা এলো। আগামী ৩ মার্চ দলের অভ্যন্তরীণ নির্বাচন হওয়ার কথা।

পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন (ইসিপি) ও সুপ্রিম কোর্ট পিটিআইয়ের অভ্যন্তরীণ নির্বাচনকে বেআইনি ঘোষণা করে। দলীয় প্রতীক ক্রিকেট ব্যাটও কেড়ে নেয়। এরপর প্রায় এক মাসের বেশি সময় ধরে দলের শীর্ষ পদটি শূন্য ছিল।

জিও নিউজকে মারওয়াত বলেন, অযোগ্যতা ও দুর্বল পারফরম্যান্সই গোহরকে চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণের প্রধান কারণ। তিনি একজন ভদ্রলোক কিন্তু তার কাজ সন্তোষজনক ছিল না।

পিটিআই নেতা বলেন, গোহর কর্মীদের প্রত্যাশা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন। পার্টি অফিস চালাতে হলে সব সময় সক্রিয় থাকতে হয়, কিন্তু তিনি তা করতে পারেননি।

নির্বাচনের ফলাফলের পরে, দলীয় নেতৃত্বের দৃষ্টিভঙ্গি প্রশংসনীয় ছিল না। নির্বাচনের পরে শক্ত হাতে দলের নেতৃত্ব দেওয়া উচিত ছিল, কিন্তু তিনি তাতে ব্যর্থ হন বলেও মন্তব্য করেছেন মারওয়াত।

পিটিআইয়ের মুখপাত্র রওফ হাসান, চেয়ারম্যান, কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক পর্যায়ের নেতা ঠিক করতে ৫ ফেব্রুয়ারি আন্তঃদলীয় নির্বাচনের ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু পরে তা স্থগিত করা হয়।

নতুন নির্বাচনি সূচি অনুযায়ী,আন্তঃদলীয় নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ইচ্ছুক প্রার্থীরা ২৩ ও ২৪ ফেব্রুয়ারি  মনোনয়নপত্র জমা দিবেন, ২৫ ফেব্রুয়ারি যাচাই-বাছাই করা হবে।

মনোনয়নপত্রের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ২৭ ফেব্রুয়ারি ঘোষণা করা হবে এবং ৩ মার্চ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের পাশাপাশি প্রাদেশিক নেতা নির্বাচনেও ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

ইত্তেফাক/এনএন