বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

পার্বতীপুর-রংপুর রুটে বগি লাইনচ্যুত

৮ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল শুরু, তদন্ত কমিটি গঠন

আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:৪২

গমভর্তি মালবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুতের ঘটনায় দীর্ঘ ৮ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর দিনাজপুরের পার্বতীপুর-রংপুর রুটে ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল পৌনে ৮টার দিকে পার্বতীপুরের গুলপাড়া এলাকায় মালবাহী ট্রেনের বগি লাইচ্যুত হয়। এ ঘটনায় বিকেলে রেলের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলীকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের কমিটি তদন্ত গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী তিনদিনের মধ্য তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

জানা গেছে, সকাল থেকে পার্বতীপুর-রংপুর রুটে মিটারগেজ সেকশন আন্তঃনগরসহ সব ধরনের ট্রেন চলাচল বন্ধ হয় যায়। উদ্ধারকারী ট্রেন এনে লাইনচ্যুত বগিটি উদ্ধার করা হয়। বিকেল ৪টার দিকে বগিগুলা সরিয়ে নেওয়া হয়। বিকেলে লাইন পরিষ্কার হওয়ার পর থেকে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এদিকে, দুর্ঘটনার কারণে দোলনচাপা ট্রেন পার্বতীপুর রেল স্টেশন থেকে সকাল ৯টা ৪০ মিনিটের পরিবর্তে ৭ ঘণ্টা দেরিতে বোনারপাড়ার উদ্দেশ্য ছেড়ে যায়। কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেন পার্বতীপুর রেল স্টেশন থেকে সকাল ৯টা ৩০ মিনিটর পরিবর্তে ৮ ঘণ্টা দেরিতে ঢাকার উদ্দেশ্য ছেড়ে যায়। কমিউটার ট্রেন খোলাহাটি থেকে পার্বতীপুর রেল স্টেশনে ছেড়ে আসে বিকেল ৫টায়, বুড়িমারী এক্সপ্রেস বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে পার্বতীপুর রেল স্টেশনে পৌঁছায়।

পার্বতীপুরে কর্মরত রেলের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্ত জানান, রেলের স্লিপার পরিবর্তনের কারণে মালবাহী বগিটি লাইনচ্যুত হয়।

ট্রেনের লোকোমাস্টার (চালক) আব্দুস সাফী জানান, রেল লাইনের স্লিপার পরিবর্তনের কাজ করায় ট্রেন লাইনচ্যুতের এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। ট্রেনের গতিও কম ছিল।

পার্বতীপুর স্টেশন মাস্টার মো. রফিক চৌধুরী বগি লাইনচ্যুতর ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠনর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, উদ্ধারকাজ সম্পন্ন হওয়ায় পার্বতীপুর-রংপুর রেলপথে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

ইত্তেফাক/এসকে