বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

‘নাভালনির মৃত্যুতে গুপ্তচর সংস্থার হাত রয়েছে’

আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৯:০৯

বুকে একটা ঘুষি মেরেই খুুন করা হয়েছে রাশিয়ার পুতিন বিরোধী নেতা নাভালনিকে। এমন চাঞ্চল্যকর দাবি করেছেন এক মানবাধিকার কর্মী। রাশিয়ার বিরোধী নেতাকে হত্যা নিয়ে সরব হয়েছেন তিনি। ওই মানবাধিকার কর্মীর নাম ভ্লাদিমির অসেচকিন। তিনি বলেছেন,  মধ্যযুগীয় পদ্ধতিতে নাভালনিকে এক ঘুষিতে হূদযন্ত্র বিকল করে হত্যা করেছে দেশটির একসময়ের সমালোচিত গুপ্তচর সংস্থা কেজিবি। 

গত ১৬ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার রুশ জেল কর্তৃপক্ষ রাশিয়ার বিরোধী নেতা নাভালনির মৃত্যুর খবর জানায়। এরপর বিষয়টি নিয়ে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়। নাভালনির স্ত্রী এবং মা দাবি করেন, পুতিনের কঠোর সমালোচক হওয়ায় তাকে পুতিনের নির্দেশেই জেলের ভিতরে  হত্যা করা হয়েছে। তবে কর্তৃপক্ষ এই দাবি অস্বীকার করে বলেছে, অসুস্থ হয়েই তার মৃত্যু হয়েছে। লাশ ফেরত দেয়া নিয়ে রুশ কর্তৃপক্ষ গড়িমসি করলেও গতকাল নাভালনির মায়ের কাছে লাশ হস্তান্তর করে কারা কর্তৃপক্ষ।

ভ্লাদিমির অসেচকিন এক সাক্ষাতকারে বলেছেন, এক ঘুষিতে মানুষ হত্যা করা রাশিয়ার গুপ্তচর সংস্থা কেজিবির স্পেশাল ডিভিশনের পুরনো পদ্ধতি। তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় কীভাবে বুকের ঠিক মাঝ বরাবর একটিমাত্র ঘুষি মেরে হূদযন্ত্র বিকল করে কিভাবে কাউকে হত্যা করা যায়। এটা কেজিবির হলমার্ক হত্যার পদ্ধতি হিসাবে পরিচিত। কেজিবি ছিল সোভিয়েত যুগের ভয়ংকর গুপ্তচর সংস্থা। আনুষ্ঠানিকভাবে ১৯৯১ সালের ৩ ডিসেম্বরে এটি বিলুপ্ত হয়। রাশিয়া আমলে ফরেন ইন্টেলিজেন্স সার্ভিসে রূপ নেয় সেটি। তবে তাদের কর্মপদ্ধতি একই আছে।

ইত্তেফাক/এএইচপি