বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

মুক্তির চূড়ান্ত পর্যায়ে খুন হন নাভালনি, দাবি তার দলের

আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২২:০৭

বন্দীবিনিময়ের অংশ হিসেবে রাশিয়ার বিরোধী নেতা নাভালনিকে মুক্ত করার একটি চুক্তি প্রায় হয়ে যাচ্ছিল। ঠিক তখনই তার মৃত্যুর খবর আসে। সম্প্রতি এমনটা দাবি করেছে অ্যালেক্সি নাভালনির দল রাশিয়া অব দ্য ফিউচারের এক নেতা। খবর এএফপি।

৪৭ বছর বয়সী অ্যালেক্সি নাভালনি ১৬ ফেব্রুয়ারি আর্কটিক অঞ্চলের একটি কারাগারে মারা যান। তিন বছরের বেশি সময় কারাগারে আটক ছিলেন তিনি।

নাভালনির সহযোগী মারিয়া পেভচিখ বলেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্টকে সেখানে থাকা মার্কিন দুই নাগরিক ও নাভালনিকে ছেড়ে দেওয়ার বিপরীতে জার্মানিতে খুনের দায়ে দণ্ডিত রাশিয়ার কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা সার্ভিসের (এফএসবি) কর্মকর্তা ভাদিম ক্রাসিকভকে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল।

মারিয়া আরও বলেন, দুই বছর ধরে মস্কো, ওয়াশিংটন ও বার্লিনে আলোচনার পর ‘আমাকে নিশ্চিত করা হয়েছিল যে আলোচনা চলছে এবং তা চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে।’ কয়েক দিনের মধ্যেই নাভালনি হয়তো ছাড়া পেতেন।

অ্যালেক্সেই নাভালনি।

তবে এ বিষয়ে জার্মান সরকারের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে প্রশ্ন করা হলে মুখপাত্র কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

২০১৯ সালে ক্রাসিকভ বার্লিন পার্কে সাবেক চেচেন বিচ্ছিন্নতাবাদী কমান্ডার জেলিম খান খানগোশভিলিকে হত্যা করেন। এ অপরাধে জার্মানিতে তার যাবজ্জীবন হয়। জার্মান কর্তৃপক্ষের দাবি, রাশিয়ার গোয়েন্দা বাহিনীর নির্দেশে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে।

ওয়াশিংটনের অভিযোগ, মস্কো ভিত্তিহীন অভিযোগে মার্কিন নাগরিকদের গ্রেপ্তার করেছে। মস্কোর আসল উদ্দেশ্য হলো, দেশের বাইরে থাকা দণ্ডিত রুশ নাগরিকদের ফিরিয়ে আনতে এই দুজনকে গুটি হিসেবে ব্যবহার করা।

রাশিয়ায় আটক মার্কিন নাগরিকদের মধ্যে রয়েছেন সাবেক মার্কিন মেরিন পল হুইলান ও ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের সাংবাদিক ইভান গার্শকোভিচ। দুজনই গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে অভিযুক্ত।

ইত্তেফাক/এসএটি