সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

অসময়ে চোখে ছানি ও কালো দাগ? 

আপডেট : ০১ মার্চ ২০২৪, ০৪:১৫

চোখে ছানি ও কালো দাগ ভিটামিন ডি এর অভাবে হয়ে থাকে। ভিটামিন ডি আপনার চোখের স্বাস্থ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ যা সহজত সূর্যের আলো থেকে তৈরি হয়ে থাকে। যদিও এটি সাধারণভাবে বিভিন্ন খাবারে পাওয়া যায়, কিন্তু সময়ের সাথে দেহে এর অভাব হতে পারে। এ অভাবের ফলে চোখে ছানি ও কালো দাগ দেখা দিতে পারে।

ভিটামিন ডি চোখ সহ আপনার স্বাস্থ্যের অনেক ক্ষেত্রে এটি ভূমিকা রাখে। ভিটামিন ডি শরীরের ক্যালসিয়াম ও ফসফেট স্তর নিয়ন্ত্রণ করে এবং অস্থি ও দাঁতের উন্নতি সাধন করে। এটি অপরিহার্যভাবে স্বাস্থ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান। ভিটামিন ডি কিছু খাবারে পাওয়া যায়  যেমন- মাছ, দুধ, ডিম, শীতের সবুজ সবজী, ছানা, গরুর গোশত ইত্যাদি। 

ভিটামিন ডি বেশিরভাগই সূর্যের সংস্পর্শে আসার পরে আপনার ত্বকে তৈরি হয় এবং এটি আপনার সারা শরীরে পুষ্টি তৈরিতে এবং খনিজগুলো সরাতে সহায়তা করে। বেশ কিছু স্বাস্থ্য সমস্যা এড়াতে আপনার ভিটামিন ডি প্রয়োজন এবং ম্যাকুলার চোখে ছানি ও কালো দাগ তার মধ্যে অন্যতম।

চিকিৎসকদের মতে, শরীরে ভিটামিন ডি-এর স্বাভাবিক মাত্রা ৩০। ১০ এর নিচে যে ব্যক্তির ভিটামিন ডি-থাকে তাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক দুর্বল যা কনজাংটিভাইটিস ভাইরাসের দ্রুত আক্রমণ ঘটাতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে, ৯০ শতাংশ ব্যক্তির শরীরে ভিটামিন ডি স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক কম থাকায় কনজাংটিভাইটিসে আক্রান্ত ছিল। এর ফলে চোখ ফ্লুতে আক্রান্ত হয় যা চোখের উপর খুব খারাপ প্রভাব ফেলে। ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার কম খাওইয়াতে ৪০ বছরের বেশি বয়সী নারীদের চোখের নিচে কালো দাগ ও ফোলাভাব দেখা যায়। ভিটামিন ডি-র অভাবে চোখে অকালে ছানি পড়ার ঝুঁকি বাড়ে। শুধু তাই নয়, এর ঘাটতির কারণে রেটিনাল ডিজেনারেশন হয়। যে কারণে চোখের দুর্বলতা বেড়ে যায় এবং দৃষ্টিশক্তি কমে যায়।

চোখের দৃষ্টিশক্তি সুরক্ষায় ভিটামিন ডি এর উপকারিতা অনেক। ভিটামিন ডি টিস্যুর অবক্ষয়ের বিরুদ্ধে লড়াই করে এবং এটি এএমডি, গ্লুকোমা, ড্রাই আই সিন্ড্রোম এবং চোখে ছানি প্রতিরোধ করতে পরিচিত। এটি চোখকে আঘাত থেকে নিরাময় করতে সক্ষম করে এবং ম্যালিগন্যান্ট টিউমার থেকে ক্যান্সার কোষ এবং নতুন রক্তনালীগুলির বৃদ্ধি রোধ করতে সহায়তা করে। ভিটামিন ডি সঠিক পরিমাণে থাকলে স্কিনের প্রতিরোধশীলতা বাড়ে, যা কালো দাগের উৎপত্তি কমায়।

তাই ভিটামিন ডি সম্পর্কে সচেতন থাকা, ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া এবং সময়ের সাথে আবশ্যক পরিমাণ নিশ্চিত করা উচিত যা আগামীতে অসময়ে চোখে ছানি ও কালো দাগের সমস্যার সমাধানে ভূমিকা রাখতে পারে।

ইত্তেফাক/এআই

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন