সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

হাবিপ্রবি গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদের নেতৃত্বে অধ্যাপক ড. ফাহিমা-শ্রীপতি

আপডেট : ১১ মার্চ ২০২৪, ০৪:০০

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) শিক্ষকদের অন্যতম সংগঠন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. ফাহিমা খানম এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন উদ্ভিদ শরীরতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. শ্রীপতি সিকদার।

রবিবার (১০ মার্চ) উৎসব মুখর পরিবেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়াম-২ এ সংগঠনটির কার্যনির্বাহী পরিষদ নির্বাচন ২০২৪-২০২৬ অনুষ্ঠিত হয়। দুপুর সাড়ে ১২ টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩ টা পর্যন্ত চলে ভোট গ্রহণ। নির্বাচন পরিচালনা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার অধ্যাপক ড. মেহেদী ইসলাম, নির্বাচন কমিশনার অধ্যাপক ড. জামাল উদ্দিন ও রুবাইয়্যাত আল ফেরদৌস নোমান। মোট ১৬২ ভোটারের মধ্যে ভোট পড়েছে ১৫৮ টি এবং অফলাইন ও অনলাইন উভয় মাধ্যমেই ভোট প্রদানের সুযোগ ছিল বলে জানায় নির্বাচন কমিশন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার অধ্যাপক ড. মেহেদী ইসলাম বলেন, বহুল প্রতীক্ষিত এই নির্বাচনে আপনাদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠ নির্বাচন এটাই আমাদের সব থেকে বড় অর্জন। আমরা নির্বাচনকে জয় পরাজয় বলবো না এটা হবে আমাদের নেতৃবৃন্দের কমিটমেন্ট। আমি নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নয় একজন সাধারণ শিক্ষক হিসেবে সকল প্রার্থীর দেয়া প্রতিশ্রুতি যেন তারা সঠিকভাবে পালন করে এটাই প্রত্যাশা করি।

ঐদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় নির্বাচনের বেসরকারি ফলাফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার প্রফেসর ড. মেহেদী ইসলাম। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংগঠনটির সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. ফাহিমা খানম, সহ সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ডেইরি এন্ড পোল্ট্রি সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. আফরোজা খাতুন, অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. গোলাম রাব্বানী ও অ্যানিমেল সায়েন্স এন্ড নিউট্রিশন বিভাগের অধ্যাপক ড. উম্মে সালমা। সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন উদ্ভিদ শরীরতত্ত্ব ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. শ্রীপতি সিকদার। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন এগ্রিকালচারাল এন্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. মফিজউল ইসলাম ও জেনেটিক্স এন্ড অ্যানিমেল ব্রিডিং বিভাগ এর অধ্যাপক ড. মো. রাশেদুল ইসলাম।

কমিটির অন্যান্য পদে নির্বাচিতরা হলেন- কোষাধাক্ষ পদে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. খালেদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ইলেকট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মাহাবুব হোসেন, প্রচার সম্পাদক পদে ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. আব্দুল মোমিন সেখ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে কৃষিতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. সোহরাব হোসেন, সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সাইফুদ্দিন দুরুদ, শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক পদে কৃষিতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. ওবায়দুল্লাহ সাদ্দাম, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পদে উদ্ভিদতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. হাসানুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক পদে ফসল শরীরতত্ত্ব ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. রবিউল ইসলাম। এছাড়াও সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন অধ্যাপক ড. মো. মোস্তাফিজার রহমান, অধ্যাপক ড. ইমরান পারভেজ, অধ্যাপক ড. তারিকুল ইসলাম, ডা. সাব্বির হোসেন সবুজ, মীর তুহিন বিল্লাহ, ডা. নাজমী আরা রুমি, কে এইচ নাজমুল আহসান, মো. বেলাল হোসেন এবং ইয়াসমিন আরা। দশ নম্বর সদস্য পদে মো. রাশিদুল হক ও সৌরভ পাল চৌধুরী সমান সংখ্যক ভোট পাওয়ায় এখনও অমীমাংসিত রয়েছে।

উল্লেখ্য যে, কার্যনির্বাহী পরিষদ নির্বাচনে ২৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটিতে ১০ টি সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৬ জন এবং অন্যান্য পদে ১০ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। সভাপতি ও সহ-সভাপতি মোট ৪টি পদে কেউ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন নি।

ইত্তেফাক/এমএএম