মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

বাল্টিমোরের সেতুধসের ঘটনায় সর্বশেষ যা জানা যাচ্ছে

আপডেট : ২৭ মার্চ ২০২৪, ০৯:৫১

যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ডের বাল্টিমোরে একটি কন্টেইনার জাহাজের ধাক্কায় চার লেনবিশিষ্ট ফ্রান্সিস স্কট কি সেতুর একাংশ ভেঙে পড়েছে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) রাত দেড়টার দিকে সেতুর একটি পিলারে ধাক্কা দিলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। 

রয়টার্স জানিয়েছে এই ঘটনায় ভুক্তভোগী দুইজনকে উদ্ধার করা হয়েছে। বাল্টিমোর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, কমপক্ষে সাতটি যানবাহন পানিতে তলিয়ে গেছে। তবে সঠিক পরিসংখ্যান দিতে পারেননি তারা।

বাল্টিমোরের ফায়ার চিফ জেমস ওয়ালেসের বরাতে সিএনএন জানিয়েছে, এখনো নিখোঁজ রয়েছেন অন্তত সাতজন। তাদের উদ্ধারে চেষ্টা চলছে। কিন্তু সেখানকার তাপমাত্রা অনেক কম থাকায় তাদের জীবিত উদ্ধার নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে।

প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা গেছে, চার লেনের ১ দশমিক ৬ মাইল দীর্ঘ সেতুটিকে ধাক্কা দেয় জাহাজটি।

বাল্টিমোর সিটি ফায়ার ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র কেভিন কার্টরাইট এর আগে রয়টার্সকে বলেছিলেন, সেতুটি ভেঙে পড়ায় অন্তত ২০ জন মানুষ পানিতে পড়ে যায়। এতে বহু হতাহতের আশঙ্কা করা হয়।

বাল্টিমোরের মেয়র ব্র্যান্ডন স্কট জানিয়েছেন তিনি ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন। এক এক্স বার্তায় তিনি জানান, দুর্ঘটনাটি সম্পর্কে আমি অবগত আছি। জরুরি কর্মীরা ঘটনাস্থালে রয়েছেন এবং উদ্ধার কার্যক্রম চলছে।

মেরিল্যান্ডের গভর্নর ওয়েস মুর জরুরি অবস্থা মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সংস্থান দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন।

২০০৭ সালের পর সবচেয়ে বড় মার্কিন সেতু ধসের ঘটনা এটি। ওই দুর্ঘটনায় মিনিয়াপোলিসের আই-৩৫ডব্লিউ সেতু মিসিসিপি নদীতে ধসে পড়ে। তাতে ১৩ জন নিহত হন।

ইত্তেফাক/এনএন