সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

শ্রীলংকায় ন্যূনতম বেতন ৪০ শতাংশ বাড়ালো

১২ হাজার ৫০০ রুপির বেতন বেড়ে ১৭ হাজার ৫০০ রুপি

আপডেট : ২৭ মার্চ ২০২৪, ১০:২৪

দেশজুড়ে ন্যূনতম মাসভিত্তিক বেতন ৪০ শতাংশ বৃদ্ধি করেছে শ্রীলঙ্কার সরকার। মঙ্গলবার দেশটির মন্ত্রিসভা এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব অনুমোদন করেছে বলে এক ব্রিফিংয়ে জানিয়েছেন পরিবহনমন্ত্রী বান্দুলা গুণাবর্ধনে। খবর রয়টার্সের।

এতদিন পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার ন্যূনতম মাসভিত্তিক বেতন ছিল ১২ হাজার ৫০০ রুপি। মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্তের পর এখন তা বেড়ে হলো ১৭ হাজার ৫০০ রুপি। 

ব্রিফিংয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের বর্তমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ সরকারের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আমরা আশা করছি, শিগগিরই দৈনিক মজুরিও আমরা বাড়াতে পারব।’ 

প্রসঙ্গত করোনা মহামারি, দুর্নীতি ও আর্থিক অব্যবস্থাপনার জেরে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ তলানিতে ঠেকে যাওয়ায় ভয়াবহ আর্থিক সংকটে পড়ে শ্রীলঙ্কা। সংকটের এক পর্যায়ে ২০২২ সালের মার্চে নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা শ্রীলঙ্কার সরকার।

এদিকে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ কমে যাওয়ায় সেখানে খাদ্য, ওষুধ, জ্বালানিসহ যাবতীয় পণ্যের অসহনীয় মূল্যস্ফীতি শুরু হয়।  ফলে একসময়ের উচ্চমাধ্যম আয়ের এই দেশটিতে বাড়তে থাকে হতদরিদ্রের সংখ্যা। মহামারিপূর্ব সময়ের তুলনায় বর্তমানে শ্রীলঙ্কায় সার্বিক জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়েছে প্রায় ৯০ শতাংশ। দেশটির মোট জনসংখ্যার ২০ শতাংশ চরম দরিদ্র, যাদের মাসিক আয় ১৭ হাজার ৫৭২ রুপি।

ভেঙে পড়া অর্থনীতি পুনর্গঠনে গত বছর শ্রীলঙ্কাকে ২৯০ কোটি ডলার জরুরি (বেইলআউট) ঋণ দিয়েছিল সরকার, সেই অর্থ দিয়েই ফের ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে শ্রীলঙ্কা। ইতোমধ্যে তাতে সাফল্যও পাওয়া যাচ্ছে। গত ফেব্রুয়ারিতে মূল্যস্ফীতি ৫ দশমিক ৯ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে দেশটিতে। এর আগ পর্যন্ত দেশটির মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৭০ শতাংশ।

ইত্তেফাক/এএইচপি