মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

মার্কিন কূটনীতিককে তলব করলো ভারত

আপডেট : ২৭ মার্চ ২০২৪, ১৯:২৯

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের গ্রেপ্তারের বিষয়ে মন্তব্য করেছিল মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্ট। মন্তব্যে আপত্তি জানিয়ে বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের ভারপ্রাপ্ত ডেপুটি চিফ অব মিশন গ্লোরিয়া বারবেনাকে তলব করেছে ভারত। প্রায় ৪০ মিনিট ধরে তাদের বৈঠক চলেছে।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘ভারতের কিছু আইনি প্রক্রিয়া সম্পর্কে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্রের মন্তব্যে আমরা তীব্র আপত্তি জানাই। কূটনীতিতে রাষ্ট্রগুলো একে অন্যের সার্বভৌমত্ব ও অভ্যন্তরীণ বিষয়ে সম্মান করবে বলে আশা করা হয়।’

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ‘গণতান্ত্রিক সহকর্মীর ক্ষেত্রে এই দায়িত্বটি আরও বেশি। অন্যথায় অসুস্থ নজির সৃষ্টি হতে পারে। ভারতের আইনি প্রক্রিয়াগুলো একটি স্বাধীন বিচারব্যবস্থার ওপর ভিত্তিতে যা গঠনমূলক ও সময়োপযোগী ফলের জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এর ওপর সন্দেহ পোষণ করা অযৌক্তিক।’

কেজরিওয়ালের গ্রেপ্তারের বিষয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রতিক্রিয়া জানানোর একদিন পরেই কূটনীতিককে তলব করা হয়েছে। একটি বিবৃতিতে মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের একজন মুখপাত্র কেজরিওয়ালের আইনি প্রক্রিয়ায় ন্যায্যতা, স্বচ্ছতা ও সময়োপযোগীতা নিশ্চিত করার গুরুত্ব তুলে ধরেছিলেন।

গত সপ্তাহে জার্মানির প্রতিক্রিয়ার পর কেজরিওয়ালের গ্রেপ্তারের বিষয়ে দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক প্রতিক্রিয়া ছিল যুক্তরাষ্ট্রের। কেজরিওয়ালের জন্য ন্যায্য ও নিরপেক্ষ বিচারের অধিকারের ওপর জোর দিয়েছিল জার্মানি। জার্মান দূতাবাসের ডেপুটি হেড অব মিশন জর্জ এনজওয়েলারকেও আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বেগ জানানোর জন্য ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তলব করেছিল।

আবগারি নীতি সংক্রান্ত দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে কেজরিওয়ালকে। মদ আইনে দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়ার পর দিল্লির একটি আদালত তার হেফাজত ২৮ মার্চ পর্যন্ত বাড়িয়েছে।

ইত্তেফাক/এসএটি