মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

কিউইদের অলরাউন্ডার কোরি এখন যুক্তরাষ্ট্রের

আপডেট : ৩০ মার্চ ২০২৪, ১২:৫০

চলতি বছর যুক্তরাষ্ট্র এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে অনুষ্ঠিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসর। স্বাগতিক দল হিসেবে এবারের আসরে অংশগ্রহণ করবে যুক্তরাষ্ট্র। যার কারণে আসন্ন বিশ্বকাপ নিয়ে নিজেদের পরিকল্পনা সাজাচ্ছে বিশ্বকাপের স্বাগতিক দলটি। তবে আসরটির আগে নিউজিল্যান্ড দলের সাবেক তারকা অলরাউন্ডার কোরি অ্যান্ডারসনকে নিজেদের ডেরায় ভিড়িয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে দেশটি।

বিশ্বকাপের মূল মঞ্চে মাঠে নামার আগে নিজেদের মাটিতে আগামী মাসে কানাডার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি- টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে যুক্তরাষ্ট্র। এই সিরিজে চমক রেখে ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। কানাডার বিপক্ষে এই সিরিজে স্বাগতিকদের দলে ডাক পেয়েছেন নিউজিল্যান্ড দলের সাবেক অলরাউন্ডার কোরি অ্যান্ডারসন। মূলত স্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক হওয়ার কারণে দেশটির নাগরিকত্ব পান কোরি অ্যান্ডারসন। যার কারণে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় দলে খেলার প্রস্তাব দেওয়া হলে তাকে সেই প্রস্তাবে সাড়া দেন সাবেক এই কিউই অলরাউন্ডার। 

এর আগে ২০১২ সালে ডিসেম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের মধ্যে দিয়ে নিউজিল্যান্ডের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় কোরি অ্যান্ডারসনের। দারুণ সম্ভাবনা নিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করলেও বেরসিক ইনজুরির কারণে দল থেকে বাদ পড়ার পর আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি এই সাবেক কিউই অলরাউন্ডার। সর্বশেষ ২০১৮ সালে দুবাইয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে কিউদের জার্সি গায়ে মাঠে নামেন এই ক্রিকেটারের। 

২০১২ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের দলের নিয়মিত মুখ ছিলেন কোরি। সেই সময় কিউইদের হয়ে ১৩ টেস্ট ও ৪৯টি ওয়ানডে এবং ৩১টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেন তিনি। এছাড়াও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২০১৪ সালের ওয়ানডে ক্রিকেটে ৩৬ বলে ১৩১ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন এই কিউই অলরাউন্ডার। যা এখন পর্যন্ত কিউইদের ওয়ানডে ইতিহাসের দ্রুততম সেঞ্চুরি এবং এক দিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দ্বিতীয় দ্রুততম সেঞ্চুরি। এই তালিকায় অ্যান্ডারসনের ওপরে আছেন কেবল দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক তারকা ক্রিকেটার এবি ডি ভিলিয়ার্স। ২০১৫ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩১ বলে ১৪৯ রান করেন এই সাবেক প্রোটিয়া ব্যাটার।

এদিকে শুধু কোরি অ্যান্ডারসন নন, কানাডার বিপক্ষে এই সিরিজ দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের জার্সি গায়ে অভিষেক হতে যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকান উইকেটরক্ষক ব্যাটার আন্দ্রিস গাউসের। দক্ষিণ আফ্রিকার অনূর্ধ্ব-১৯ দলে খেলেছিলেন এই ক্রিকেটার। এছাড়া আরো এক প্রোটিয়া ক্রিকেটারসহ যুক্তরাষ্ট্রের এই দলে সর্বোচ্চ পাঁচ জন ভারতীয় ক্রিকেটার আছে। এক জন পাকিস্তানি এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের এক জন ক্রিকেটারও আছে এই দলটিতে। কানাডার বিপক্ষে এই সিরিজের দল নিয়ে ইউএসএ ক্রিকেট বিবৃতিতে জানায়, 'আইসিসি টি- টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে এই সিরিজটা আমাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের দলে কিছু নতুন খেলোয়াড় এসেছেন। এই সিরিজের ম্যাচগুলো বিশ্বকাপের মঞ্চে আমাদের ভালো করতে সাহায্য করবে।' 

একনজরে কানাডার বিপক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের স্কোয়াড: মোনাঙ্ক প্যাটেল (অধিনায়ক), অ্যারন জোনস, আন্দ্রিয়েস গুস, কোরি অ্যান্ডারসন, গজানন্দ সিং, হারমিত সিং, জেসি সিং, মিলিন্দ কুমার, নিসর্গ প্যাটেল, নিতিশ কুমার, নশতুশ কেনজিগে, সৌরভ নেত্রাভালকার, শ্যাডলি ফন শাকওয়াইক, স্টিভেন টেলর, উসমান রফিক।

ইত্তেফাক/জেডএইচ