মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

নারায়ণগঞ্জে বাসচাপায় বাবা-ছেলে নিহত, আহত মা

আপডেট : ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১৫:৩৩

নারায়ণগঞ্জের কাঁচপুরে বাসচাপায় বাবা-ছেলে নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ছেলের মা গুরুতর আহত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। শনিবার (২০ এপ্রিল) সকাল ৭টার দিকে কাঁচপুরের ক্যাওডালা বাসস্ট্যান্ডে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলেন সুরেষ ডাকুয়া (৩৫), ছেলে রোকেশ ডাকুয়া (৭)। আহত হয়েছেন মা নিপু রায় (৩০)। নিহত সুরেষ ডাকুয়ার বাবার নাম নারায়ণ চন্দ্র ডাকুয়া। শিশু রাকেশ ঝালকাঠি সদর উপজেলার খাজুরা গ্রামের একটি স্কুলে প্রথম শ্রেণিতে পড়ত। 

জানা গেছে, শিশু রোকেশ ডাকুয়া ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। সুরেষ ডাকুয়া ও তার স্ত্রী নিপু রায়কে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হলে বেলা ১১টার দিকে সুরেষকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। 

ঢামেক হাসপাতালে কাঁচপুর হাইওয়ে থানার কমিউনিটি পুলিশ সদস্য মনির হোসেন ও আমজাদ হোসেন জানান, সকালে তারা খবর পান, কাঁচপুর ক্যাওডালা বাসস্ট্যান্ডে রাস্তা পার হওয়ার সময় তিনজনকে একটি বাস চাপা দিয়েছে। পরে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখেন শিশুটি মারা গেছে। আহত স্বামী-স্ত্রী রাস্তায় কাতরাচ্ছেন। তখন দ্রুত তাদের দুজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেন তারা। হাসপাতালে আনার পরপরই সুরেষ ডাকুয়াকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। 

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত নিপু রায় জানান, তাদের বাড়ি ঝালকাঠি সদর উপজেলার খাজুরা গ্রামে। গ্রামে সুরেষের টেইলার্সের দোকান রয়েছে। গত শনিবার (১৩ এপ্রিল) গ্রাম থেকে স্বামী-সন্তানসহ নারায়ণগঞ্জে ‘বাবা লোকনাথ ব্রহ্মচারী মন্দিরে’ এসেছিলেন পূজা-অর্চনার জন্য। সেখান থেকে আজ (শনিবার) সকালে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হয়েছিলেন। পথে কাঁচপুর ক্যাওডালা বাসস্ট্যান্ডে বাবার হাত ধরে রাস্তা পার হচ্ছিল তার ছেলে। আর তাদের পেছনে ব্যাগ হাতে নিয়ে পার হচ্ছিলেন তিনি। এ সময় একটি বাস তাদের ওপর উঠে যায়। 

কাঁচপুর হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নওফেল বলেন, দুর্ঘটনার পর গাড়িটি নিয়ে পালিয়েছেন চালক। গাড়িটি শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। শিশুটির লাশ ঘটনাস্থল থেকে থানায় নেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হবে।

ইত্তেফাক/পিও