মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

মবিল কোম্পানি কর্মীর ময়নাতদন্ত রিপোর্টে ‘আত্মহত্যা’, ক্ষুব্ধ পরিবারের আদালতে মামলা

আপডেট : ২১ এপ্রিল ২০২৪, ২২:৪৫

কুষ্টিয়ায় আমিরাত লুবে অয়েল (মবিল) কোম্পানীর কর্মী জাহাঙ্গীর আলমের (৪০) রহস্যজনক মৃত্যুর ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পুলিশের হাতে এসেছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের তথ্য অনুযায়ী মৃত্যু ঘটনাটিকে নিশ্চিতভাবে আত্মহত্যা বলছে পুলিশ। তবে পরিবারের দাবি, এটি আত্মহত্যা নয়, তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

ময়নাতদন্ত রিপোর্টটি সঠিক নয় দাবি করে সংক্ষুদ্ধ পরিবারের পক্ষে সুবিচার চেয়ে সম্প্রতি কুষ্টিয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট (সদর) আমলী আদালতে মামলা করা হয়েছে। 

মামলার বিবরণে জানা যায়, টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার দিগর বাইদ গ্রামের মৃত ময়েন উদ্দিনের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম আমিরাত লুবে ওয়েল কোম্পানীর কর্মী হিসাবে কুষ্টিয়ায় কর্মরত ছিলেন। চাকরির সুবাদে তিনি কুষ্টিয়া শহরের কমলাপুর এলাকায় ভাড়া বাড়িতে স্ত্রী, দুই শিশু কন্যাসহ বসবাস করতেন। 

মামলার বাদীর দাবি, ২০২৪ সালের ৬ মার্চ সকালে বাড়ির ভেতরে পরিকল্পিতভাবে খুনিরা জাহাঙ্গীরকে হত্যার পর গলায় ফাঁস লাগিয়ে লাশ ঝুলিয়ে রাখে। 

মামলার বাদী জাহাঙ্গীরের চাচা আবু হানিফ মিয়া পিটিশনে সন্দেহভাজন আসামি আমিরাত লুবে কোম্পানীর ম্যানেজার মাহবুবুর রহমান জাহিদসহ অজ্ঞাতনামা ৪-৫ জনের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনেন। 

মামলাটির শুনানী এখনো হয়নি। আদালতে শুনানীর পর বিচারক এ বিষয়ে পরবর্তী আদেশ দিবেন বলে সংশ্লিষ্ট আদালত সূত্র জানিয়েছে। 

ইত্তেফাক/ডিডি