সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

তালায় ৬০ বছর অবৈধ দখলে থাকা ৩৩ বিঘা সরকারি জমি উদ্ধার

আপডেট : ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৯:২৭

খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়ক সংলগ্ন তালা উপজেলার মির্জাপুর নামক স্থানে ১১.২৬ একর (প্রায় ৩৪ বিঘা) সরকারি খাস জমি উদ্ধার করেছে উপজেলা প্রশাসন। 

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) বিকাল ৫টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও তালা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আরাফাত হোসেনের নেতৃত্বে উপজেলা ভূমি অফিস এবং পাটকেলঘাটা ইউনিয়ন ভূমি অফিসের যৌথ অভিযান চালিয়ে এসব জমি উদ্ধার করা হয়।
 
জানা গেছে, ১১ একরের বেশি জায়গা একটি চক্র ৫০/৬০ বছর ধরে অবৈধভাবে দখল করে ভোগ করে আসছিল। সম্প্রতি তালা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আরাফাত হোসেনের চোখে পড়ে অবৈধ দখলে থাকা এই বিপুল পরিমাণ খাস জায়গা। পরে তিনি বিষয়টি সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফিয়া শারমিনকে অবহিত করলে জেলা প্রশাসক হুমায়ুন কবির সহকারী কমিশনার ভূমিকে সরকারি খাস জমি উদ্ধার করার জন্যে নির্দেশনা প্রদান করেন। 

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) আরাফাত হোসেন জানান, ১৯৬০ থেকে ১৯৬২ সালের মধ্যে সরকারের পক্ষ থেকে উক্ত জমি অধিগ্রহণ করা হয়। অধিগ্রহণের পর থেকে অবৈধ দখলদাররা উক্ত জমি দখল করে রেখেছিল। মঙ্গলবার বিকালে  অভিযানের মাধ্যমে দীর্ঘদিন অবৈধ দখলে থাকা হয়ে ১১.২৬ একর জমি প্রায় (৩৪ বিঘা)উদ্ধার করা হয়। 

তিনি বলেন, একটি চক্র সরকারি এ জায়গা বহুবছর ধরে অবৈধভাবে দখল করে রেখেছিল। উদ্ধার হওয়া জায়গাটিতে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে লাল ফ্লাগ দিয়ে যায়গাটি চিহ্নিত করা হয়েছে। এরপরও যদি অবৈধভাবে কেউ এ জায়গায় প্রবেশ বা দখল করার চেষ্টা করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সাংবাদিককের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, উপজেলার পাটকেলঘাটা বাজারের সরকারি সম্পত্তি ইতিমধ্যে চিহ্নিত করা হয়েছে। এ ছাড়া খেশরা ইউনিয়নে ৬৫ একর অর্পিত সম্পত্তি চিহ্নিত করার কাজ চলমান রয়েছে। উক্ত জমিও অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে মুক্ত করা হবে।

তালা উপজেলা ভূমি কমিটি নেতা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আলাউদ্দীন জোয়ার্দ্দার বলেন, তালার এসিল্যান্ডের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে এসব সরকারি জমি উদ্ধারের ঘটনা প্রশসংসার দাবি রাখে। একইসঙ্গে প্রকৃত ভূমিহীনদের মাঝে খাসজমি বন্দোবস্তের দাবি জানান তিনি।  

তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফিয়া শারমিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ইত্তেফাক/পিও