সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

নয়া দিল্লীস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশনে রবীন্দ্র জয়ন্তী উদযাপন

আপডেট : ১৪ মে ২০২৪, ১৮:৩১

নয়াদিল্লীস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশনে সোমবার (১৩ মে) বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬৩তম জন্মবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই হাই কমিশনার মো. মোস্তাফিজুর রহমান অতিথিদের স্বাগত জানান। হাই কমিশনার তার বক্তব্যে বলেন, কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী যিনি সাহিত্য, কলা, সঙ্গীত, শিক্ষা, সংস্কৃতি ও সমাজ সংস্কারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। তিনি উপনিবেশবাদ, গোঁড়ামি ও সমাজের নানা অনাচারের বিরুদ্ধে রবীন্দ্রনাথের বলিষ্ঠ লেখনীর কথা তুলে ধরেন এবং একটি অন্তর্ভুক্তিমূলক ও সাম্যবাদী সমাজ প্রতিষ্ঠায় রবীন্দ্রনাথের অবদানকে স্মরণ করেন। 

কবিগুরুর “আমার সোনার বাংলা” গানটিকে বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত হিসেবে গ্রহণ করায় তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে প্রথিতযশা সঙ্গীত শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা রবীন্দ্র সঙ্গীত পরিবেশন করেন। তার প্রাণবন্ত সঙ্গীত পরিবেশনায় উপস্থিত শ্রোতারা মুগ্ধতা প্রকাশ করেন। বন্যা সম্প্রতি ভারত সরকারের নিকট হতে পদ্মশ্রী পদক লাভ করেন।

সঙ্গীত সন্ধ্যার শেষে সুস্বাদু বাংলাদেশি খাবার পরিবেশন করা হয়। অনুষ্ঠানে স্বাগতিক দেশের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, সাংবাদিক ও বিপুল সংখ্যক বাঙালি উপস্থিত ছিলেন।

ইত্তেফাক/এআই