শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

হাসপাতালে চিকিৎসা পেতে দেরি, চিকিৎসকসহ ৪ জনের ওপর হামলা

আপডেট : ২২ মে ২০২৪, ০৯:২২

মাদারীপুরে জেলা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসা দিতে দেরি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসকের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। চিকিৎসক সালমান চৌধুরীকে বাঁচাতে এলে হামলার শিকার হয় আরো তিনজন। 

মঙ্গলবার (২১ মে) রাত ৯টার দিকে জেলা ২৫০ শয্যা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ঘটে এই ঘটনা। হামলার ঘটনায় দুজনকে আটক করে পুলিশ সোপর্দ করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। 

আটক ব্যক্তিরা হলেন- সদর উপজেলার হাজিরহাওলা গ্রামের আতিকুর রহমান জমাদ্দারের ছেলে হৃদয় জমাদ্দার (২৩) ও ঝাউদি এলাকার মজিবর শেখের ছেলে রিফাত ইসলাম (২৪)।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, জ্বরে আক্রান্ত হয়ে সদর উপজেলার হাজিরহাওলা গ্রামের আতিকুর রহমান জমাদ্দারের ছেলে সাইফুল জমাদ্দার (২২) হাসপাতালে আসেন। এ সময় অন্যকাজ থাকায় ব্যবস্থাপত্রে নাম লিখতে দেরি করেন ওয়ার্ড বয় সামচুর রহমান (৫৫)। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সাইফুলের সঙ্গে থাকা তার ভাই হৃদয় জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সালমান চৌধুরীর উপর হামলা চালায়। তাকে বাঁচাতে অন্য স্টাফরা এগিয়ে আসলে ওয়ার্ড বয় সামচুর রহমান, ট্রলিবয় হালান বেপারী (২৮), আকাশ সরদারকে (২০) পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ ওঠে হৃদয় ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে। এতে আহত ৪ জন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। পরে খবর দেওয়া হয় সদর মডেল থানা পুলিশে। খবর পেয়ে হামলার ঘটনায় হৃদয় ও রিফাতকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

মাদারীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এএইচএম সালাউদ্দিন বলেন, ‘হাসপাতালে স্টাফদের উপর হামলার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুইজনকে থানায় নিয়ে এসেছে। এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

ইত্তেফাক/এসজেড