মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

জিমিকে ১২ ম্যাচ বহিষ্কার, প্রিন্সকে চার বছর

আপডেট : ২৬ মে ২০২৪, ১৪:১৫

হকি ফেডারেশনের ইতিহাসে এমন ঘটনা বিরল। ঘরোয়া হকিকে কেন্দ্র করে একসঙ্গে খেলোয়াড়, কোচ, কর্মকর্তা নিষিদ্ধ হয়েছেন। আজীবন বহিষ্কার, জরিমানা, শোকজ করার ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি। খেলোয়াড় নিষিদ্ধ, কর্মকর্তা আজীবন নিষিদ্ধ, ক্লাবকে জরিমানা করাসহ কী হয়নি গতকালকের সভায়। উত্তেজনাপূর্ণ সভা হয়েছে। পুরো সভাটি হয়েছে প্রিমিয়ার লিগকে কেন্দ্র করে। 

এই সভায় লিগের যুগ্ম-চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়েছে আবাহনী ও মেরিনারকে। লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ঘোষণার চেয়েও বড় ঘটনা ছিল একসঙ্গে অনন্ত ১০ খেলোয়াড়কে বহিষ্কার করা হয়েছে। খেলোয়াড়রা আপিল করতে পারবেন। কিন্তু কর্মকর্তারা আপিল করতে পারবেন না বলে জানিয়েছে ফেডারেশন।

সবচেয়ে বেশি শাস্তি দেওয়া হয়েছে মোহামেডানকে। তাদের ঘরের খেলোয়াড়, কোচ কর্মকর্তা মিলে ১০ জনকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে। ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক মোমিনুল হক সাঈদ জানিয়েছেন হকির ইতিহাসে এক সঙ্গে এত খেলোয়াড় কর্মকর্তাকে শাস্তি দেওয়া হয়নি। এবারই এটা হয়েছে। আর এই সভা করতে গিয়ে ম্যারথন মিটিং করতে হয়েছে আমাদেরকে।’ তিনি বলেন, ‘সবকিছু যাচাই বাছাই করে শাস্তি দেওয়া হয়েছে।’ মোহামেডানকে সবচেয়ে বেশি শাস্তি কেন? সাঈদ জানিয়েছেন শাস্তি আরও বেশি হয়। সেটা কমিয়ে আনা হয়েছে।’

দেশের হকির ১ নম্বর তারকা খেলোয়াড় রাসেল মাহমুদ জিমিকে আগামী মৌসুমে টুর্নামেন্ট এবং লিগ খেলতে দেওয়া হবে না। সেই পরিকল্পনায় জিমি ১২ ম্যাচ বহিষ্কার। সাঈদ জানিয়েছেন প্রস্তাবনা ছিল আজীবন নিষিদ্ধ করার। কিন্তু মিটিংয়ে সেটি কমিয়ে ১২ ম্যাচ করা হয়েছে।’ জিমির অপরাধ কী জানতে চাইলে সাঈদ বলেন, ‘জিমি খেলা চলাকালীন বিদেশি আম্পায়ারকে গালি দিয়েছে। খেলা চলাকালীন ১২৩ বার স্টপ করেছে। তার কারণে ২১৬ মিনিট খেলা বন্ধ ছিল।’ মোহামেডানের হকির ম্যানেজার আরিফুল হক প্রিন্সকে ৪ বছর ক্লাব হকি থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সাঈদ বলেন, ‘প্রিন্সকে আজীবন নিষিদ্ধ করার কথা ছিল। সেটাও কমিয়ে আনা হয়েছে। প্রিন্স নিজে মাঠে ঢুকে খেলা বন্ধ করেছে।’

সভা চলাকালীন প্রিন্স উপস্থিত ছিলেন। তিনি ফেডারেশনের যুগ্ম-সম্পাদক। সভায় তুমুল উত্তেজনা ছিল। এক জন আরেক জনকে দোষারোপ করেছেন। বিশেষ করে সাধারণ সম্পাদক সাঈদ, দুই যুগ্ম-সম্পাদক মাহবুবুল এহসান রানা, আরিফুল হক প্রিন্স এবং অন্য কয়েক জনের মধ্যে হট্টগোল হয়। কথা কাটাকাটি হয়। কথায় কথায় চেয়ার ছেড়ে দাঁড়িয়ে গেছেন অনেকে। উত্তেজনা থামাতে অন্যরাও এগিয়ে এলেও কাজ হয়নি। অনেকেই চুপ করে বসেছিলেন। 

তাদের মতে এবারের প্রিমিয়ার হকি লিগে যেসব ঘটনা ঘটেছে তাতে এত বড় শাস্তি দেওয়ার মতো কিছু হয়নি। আজীবন শাস্তি দিতে হবে কিংবা ১২ ম্যাচ ৭ ম্যাচ খেলতে না দেওয়ার মতো কিছু হয়নি। আজীবন শাস্তি দেওয়ার মতো কিছু হয়নি। লিগের খেলায় মোহামেডান-আবাহনীর ম্যাচে আবাহনীর মিমো মারামারি শুরু করেছিলেন। অথচ মিমোকে ২ ম্যাচ শাস্তি দেওয়া হয়েছে। এরকম অনেক সিদ্ধান্তই কারো পক্ষে গেছে, কারো বিরুদ্ধে গেছে। ছোট অন্যায়ে বড় শাস্তি দেওয়া হয়েছে।

টানা সাত ঘণ্টা সভা হয়েছে হকি ফেডারেশনের সভা কক্ষে। শেষ হয়েছে সন্ধ্যা ৬টার পর। ২৯ জনের মধ্যে ২৭ জন উপস্থিত ছিলেন। সাঈদ জানিয়েছেন মোহামেডানের জামাল রানা ফেডারেশনের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন, তিনি এটা করতে পারেন না। রাষ্ট্রীয় সংস্থা ফেডারেশন। মোহামেডানের মালয়েশিয়ান কোচ গোবিনাথন কৃষ্ণমূর্তিকে বাংলাদেশের হকি থেকে আজীবন বহিষ্কার করা প্রসঙ্গে সাঈদ বলেন, গোবিনাথন বিদেশি কোচ হয়ে তিনি কেন আমাদের দেশ নিয়ে কথা বলবেন।’ 

বহিষ্কৃত হলেন যারা

মোহামেডান

রাসেল মাহমুদ জিমি   খেলোয়াড়       ১২ ম্যাচ বহিষ্কার

আসরাফুল হক সাদ    খেলোয়াড়       ৭ ম্যাচ বহিষ্কার

নুরুজ্জামান নয়ন       খেলোয়াড়       ২ ম্যাচ বহিষ্কার

তানভীর সিয়াম        খেলোয়াড়        ৩ ম্যাচ বহিষ্কার

দ্বিন ইসলাম ইমন     খেলোয়াড়        ৩ ম্যাচ বহিষ্কার

জামাল রানা           পরিচালক        আজীবন নিষিদ্ধ

আরিফুল হক প্রিন্স     ম্যানেজার        ৪ বছর নিষিদ্ধ

রাসেল খান বাপ্পী      সহকারী কোচ    ৫ ম্যাচ বহিষ্কার

গোবিনাথন কৃষ্ণমূর্তি      কোচ         আজীবন বহিষ্কার

জুলপিদাস বিন মিজুম    খেলোয়াড়      ২ ম্যাচ বহিষ্কার

জামাল রানা           পরিচালক        আজীবন নিষিদ্ধ

আবাহনী                                     

পুস্কার খিসা মিমো      খেলোয়াড়       ২ ম্যাচ বহিষ্কার

নাঈম উদ্দিন           খেলোয়াড়       ৩ ম্যাচ বহিষ্কার

আফফান ইউসুফ       খেলোয়াড়       ২ ম্যাচ বহিষ্কার

বাংলাদেশ স্পোর্টিং ক্লাব        

তাপস বর্মন              খেলোয়াড়       ২ ম্যাচ বহিষ্কার

এজাজ                   ম্যানেজার        শোকজ

বাংলাদেশ স্পোর্টিংকে  জরিমানা         ২৫ হাজার টাকা

এ্যাজাক্স

মহি                     ম্যানেজার        শোকজ

ইমরান হাসান পিন্টু      খেলোয়াড়       ৩ ম্যাচ বহিষ্কার

মেহেদী হাসান           খেলোয়াড়       ২ ম্যাচ বহিষ্কার

এ্যাজাক্স ক্লাবকে         জরিমানা         ২৫ হাজার টাকা

আজাদ স্পোর্টিংকে       জরিমানা         ২৫ হাজার টাকা

পুলিশ

তরিকুল ইসলাম        ম্যানেজার        ২ ম্যাচ বহিষ্কার

মাকসুদুল আলম হাবুল   কোচ          ২ ম্যাচ বহিষ্কার

কাউসার             পদ উল্লেখ নেই   ৩ ম্যাচ ৫ হাজার টাকা

ঊষা ক্রীড়া চক্র    

ওয়াজিদ হোসেন        ম্যানেজার        শোকজ

দিলকুশা স্পোর্টিং                          

শাসন                  খেলোয়াড়      ২ ম্যাচ বহিষ্কার

তাবিব ই নূর            কোচ          ৫ বছর বহিষ্কার

আসি ই নূর            খেলোয়াড়       ১ বছর বহিষ্কার

মেরিনার ইয়াংস  

খাজা মিজান            কর্মকর্তা          শোকজ

* তারেক আদেল, সাজেদ আদেল

 জহিরুল ইসলাম মিতুল              আজীবন নিষিদ্ধ

ইত্তেফাক/জেডএইচ