শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার চাঁদাবাজি, পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ

আপডেট : ০৫ জুন ২০২৪, ২২:০৬

লক্ষ্মীপুরে স্থানীয় সংসদ সদস্য (এমপি) ও পুলিশের নাম ভাঙিয়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশা থেকে চাঁদাবাজির অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

রাশেদ নিজাম লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার হাজিরপাড়া ইউনিয়নের রতনের খিল গ্রামের বাসিন্দা। তিনি জেলার চন্দ্রগঞ্জ থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক আহ্বায়ক।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী এক অটোরিকশাচালক গত মাসে রাশেদ নিজাম নামের এক সাবেক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিরুদ্ধে পুলিশ সুপারের (এসপি) কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

জানা গেছে, রাশেদ নিজাম স্থানীয় সংসদ সদস্যের ভাগনে পরিচয় দিয়ে সদর উপজেলার মান্দারী ও চন্দ্রগঞ্জ এলাকায় প্রতি অটোরিকশা থেকে মাসে ৫০০ এবং ট্রাফিক পুলিশের নামে ৬০০ টাকা হারে চাঁদা আদায় করছেন। এই কাজে তিনি ফারুক হোসেন, নুরুল আলম ও রিপনকে ব্যবহার করছেন। প্রতিদিন এই সড়কে প্রায় দুই হাজার অটোরিকশা চলাচল করছে। কেউ চাঁদা দিতে অসম্মতি জানালে তার ওপর নেমে আসে নির্যাতন। এমনকি তাঁর অটোরিকশা ভাঙচুর করা হয়। পাশাপাশি মামলা দিয়ে ফাঁসানোর হুমকিও দেওয়া হয়।

মান্দারী বাজারে চাঁদা আদায়ের দায়িত্বে রয়েছেন শাহবুদ্দিন, দিঘলীতে ফারুক ও চন্দ্রগঞ্জে রয়েছেন নুরুল আলম ও রিপন। জানতে চাইলে তাঁরা চাঁদাবাজির কথা স্বীকার করেন। তবে এ বিষয়ে তাঁদের কিছুই করার নেই বলে উল্লেখ করেন।

এদিকে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও স্থানীয় সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক পিংকু ও পুলিশ সুপার তারেক বিন রশিদের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। 

তবে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রাশেদ নিজাম বলেন, এমপিকে আমি মামা ডাকি। আমি জেলা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে রয়েছি। আমি কেন সিএনজি থেকে চাঁদা তুলব? প্রশ্নই ওঠে না। এসব অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট।

ইত্তেফাক/পিও