শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

সাতক্ষীরা সীমান্তে গরু ও চামড়া পাচার রোধে কঠোর নজরদারি

আপডেট : ০৭ জুন ২০২৪, ০৩:০২

আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে প্রতিবেশী দেশ থেকে যাতে কোনো গবাদি পশু অবৈধভাবে দেশে প্রবেশ করতে না পারে, সেজন্য সাতক্ষীরার সীমান্তে বিজিবি ও পুলিশের পক্ষ থেকে কঠোর নজরদারি শুরু হয়েছে। একইসঙ্গে ঈদ পরবর্তী চামড়া পাচার রোধেও সীমান্ত রেখায় কঠোর নজর রাখবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী।

সূত্রমতে, সাতক্ষীরায় বিজিবির তিনটি ব্যাটালিয়নের অধীনে সীমান্ত এলাকা রয়েছে ২৭৮ কিলোমিটার। দীর্ঘ এ সীমান্তের প্রায় ৩০টি চোরাঘাট দিয়ে মানব পাচার ও চামড়াসহ বিভিন্ন পণ্য চোরাচালানের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে একাধিক সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে। দেশে সবচাইতে বেশি কাঁচা চামড়া সংগ্রহ করা হয় ঈদুল আজহায়। এসময় দেশে বিভিন্ন ধরনের পশু কোরবানি করা হয়, যা থেকে সারা বছরের অন্তত ৬০ শতাংশ চামড়া সংগ্রহ হয়। আবার এই সময়ে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী ও পাচারকারী সীমান্ত দিয়ে গরু আমদানি করে এবং ভারতে পাচার করে কাঁচা চামড়া। ঈদের পর সীমান্ত দিয়ে অবৈধ পথে ভারতে চামড়া পাচার রোধে তাই সাতক্ষীরার পুরো সীমান্তে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে বিজিবি ও জেলা পুলিশ। একই সঙ্গে প্রতিবেশী দেশ থেকে একটি গরু ও যাতে অবৈধভাবে দেশে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য সীমান্তে গোয়েন্দা নজরদারির পাশাপাশি বাড়ানো হয়েছে টহল।

সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মতিউর রহমান সিদ্দিকী বলেন, চামড়া পাচার রোধে পুলিশ সদস্যদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা নজরদারি। সীমান্তের সড়কে কোনো চামড়াবাহী যানবাহন ঢুকতে পারবে না। অন্য জেলা থেকেও চামড়াবাহী কোনো যানবাহন সাতক্ষীরা জেলায় প্রবেশ করতে পারবে না। তবে জেলার চামড়া ব্যবসায়ীরা তাদের সংগৃহীত চামড়া যশোর ও ঢাকার আড়ত এবং ট্যানারিতে নিয়ে যেতে পারবেন বলে জানান তিনি। সাতক্ষীরা জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. এসএম মাহবুবুর রহমান বলেন, ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে সাতক্ষীরা জেলায় ৫ হাজার ৩১৭ জন পারিবারিক ও বাণিজ্যিকভাবে খামার পরিচালনা করছেন।

সূত্রমতে, গত বছরের চেয়ে এবার প্রতি বর্গফুট চামড়ার দাম ৫ টাকা বাড়ানো হয়েছে। সেই সঙ্গে প্রতি পিস চামড়ার সর্বনিম্ন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। এক্ষেত্রে ঢাকায় প্রতি পিস গরুর চামড়ার দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১ হাজার ২০০ টাকা এবং ঢাকার বাইরে ১ হাজার টাকা। ঢাকায় প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়ার দাম ৫৫ থেকে ৬০ টাকা। আর ঢাকার বাইরে প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়ার মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ থেকে ৫৫ টাকা। এবারের ঈদে খাসির চামড়ার ক্রয়মূল্য প্রতি বর্গফুট ২০ থেকে ২৫ টাকা। আর বকরির চামড়ার ক্রয়মূল্য ১৮ থেকে ২০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/এনএন