দীর্ঘ ৫ মাস পর শারীরিক উপস্থিতিতে হাইকোর্টে বিচার কার্যক্রম শুরু

দীর্ঘ ৫ মাস পর শারীরিক উপস্থিতিতে হাইকোর্টে বিচার কার্যক্রম শুরু
বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট। ছবি: সংগৃহীত

দীর্ঘ প্রায় পাঁচ মাস পর শারীরিক উপস্থিতিতে হাইকোর্টে বিচার কার্যক্রম আজ শুরু হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে আইনজীবীসহ সংশ্লিষ্টরা হাইকোর্ট অঙ্গনে উপস্থিত হন। সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে তাপমাত্রা মেপে এবং মাস্ক পড়া নিশ্চিত করে সংশ্লিষ্টদের প্রবেশ নিশ্চিত করা হয়।

তাছাড়া শারীরিক উপস্থিতিতে আদালত পরিচালনায় কিরূপ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে তা জারি করেছে সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন। আজ থেকে শারীরিক উপস্থিতি ও শারীরিক উপস্থিতি ছাড়া উভয়ভাবেই বিচার কার্যক্রম পরিচালনা চলছে হাইকোর্টে।

সোমবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন ৩৫টি ভার্চুয়াল ও ১৮টি সশরীরী হাইকোর্ট বেঞ্চ গঠন করে দেন। ৩৫টি ভার্চুয়াল বেঞ্চের মধ্যে ২৪টি দ্বৈত ও ১১টি একক বেঞ্চ। আর শারীরিক উপস্থিতির ১৮টি বেঞ্চের মধ্যে ১৩টি দ্বৈত ও ৫টি হচ্ছে একক বেঞ্চ। দীর্ঘ প্রায় ৫ মাস পর আজ সর্বোচ্চ আদালতে শারীরিক উপস্থিতিতে শুরু হচ্ছে বিচার কার্যক্রম।

গত ৬ আগস্ট প্রধান বিচারপতিসহ সুপ্রিমকোর্টের উভয় বিভাগের বিচারপতিদের অংশগ্রহণে এক ভার্চুয়াল ফুল কোর্ট সভা অনুষ্ঠিত হয়। সে সভায় ভার্চুয়াল ও শারীরিক উপস্থিতিতে হাইকোর্ট বেঞ্চ পরিচালনার পাশাপাশি কোর্ট ড্রেসের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়।

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) জনিত সংক্রমণ রোধে সাধারণ ছুটি ও স্বাস্থ্য-ঝুঁকি এড়াতে দীর্ঘদিন নিয়মিত বিচার কার্যক্রম পরিচালনা বন্ধ ছিল।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত