ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারি ২০২০, ৮ মাঘ ১৪২৭
১৪ °সে

বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্যের পদত্যাগের দাবি জবিসাসের

বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্যের পদত্যাগের দাবি জবিসাসের
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে জবিসাসের মানববন্ধন। ছবি: ইত্তেফাক

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) উপাচার্য নাসিরুদ্দিনের পদত্যাগের দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (জবিসাস)। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের সামনে এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

ক্যাম্পাসে কর্মরত সাংবাদিক ফাতেমা তুজ জিনিয়াকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার, হয়রানিতে জড়িতদের শাস্তি, বিশ্ববিদ্যালয় ‘আলোকিত বাংলাদেশ’ পত্রিকার সাংবাদিক ও বশেমুরবিপ্রবিসাস সভাপতি শামস জেবিনের ওপর হামলার প্রতিবাদে এবং ক্যাম্পাসে স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিবেশ নিশ্চিত করার দাবিতে তারা এ মানববন্ধন করে।

সমাবেশে জবি সাংবাদিক সমিতির নেতারা বলেন, একজন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী জানার অধিকার রাখে ‘একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ কি?’ এই সামান্য বিষয় নিয়ে একজন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা যায় না। এটা নিয়মবহির্ভূত কর্মকাণ্ড।

বশেমুরবিপ্রবি প্রশাসন দাবি করেছে জিনিয়া তাদের ওয়রবসাইট এবং উপাচার্যের আইডি হ্যাক করেছে। কিন্তু তারা এ ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট প্রমাণ দিতে পারেনি। বরং তারা একজন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যাক্তির আলাপচারিতা জোর করে দেখে নিয়েছে। যা সুস্পষ্ট মানবাধিকার লঙ্ঘন। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে। একজন শিক্ষার্থীর বাবা তুলে কথা বলে নিম্ন রুচির পরিচয় দিয়েছে।

এ সময় বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্যের বিভিন্ন অপকর্মের কথা উল্লেখ করে তার অপসারণ দাবি করা হয়।

এ সময় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক লতিফুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সাবেক সভাপতি আশরাফুল ইসলাম আকাশ, সভাপতি হুমায়ুন কবির প্রমুখ।

আরও পড়ুন: শিবালয়ে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে কোটি টাকার ক্ষতি

উল্লেখ্য, ১৮ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ড. নূরউদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়। এর আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসের জেরে গত ১১ সেপ্টেম্বর তাকে বহিষ্কার করা হয়।

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
২১ জানুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন