ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬
৩৪ °সে


বেহুলার বাসর ঘরের দরোজার ছিদ্রের কথা আওয়ামী লীগ ভুলে গেছে: রিজভী

বেহুলার বাসর ঘরের দরোজার ছিদ্রের কথা আওয়ামী লীগ ভুলে গেছে: রিজভী
রুহুল কবির রিজভী। ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগ সরকার নিজেদের ক্ষমতাকে নিশ্চিদ্র মনে করলেও তারা বেহুলার বাসরঘরের দরোজার ছিদ্রের কথা ভুলে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বেগম জিয়া বিনা চিকিৎসায় মারা যাবেন না’।এই বক্তব্যে প্রমাণ হয় আসলেই আওয়ামী সরকারের ওপর নির্ভর করছে বেগম জিয়ার জীবন-মৃত্যু। তারা বেগম জিয়ার অসুস্থতা নিয়েও বিদ্রুপ করছেন। বাস্তবে খালেদা জিয়ার সঠিক চিকিৎসা হচ্ছে না। সরকারের অবহেলায় এবং প্রতিহিংসা পূরণের ফলে বিএনপি চেয়ারপারসনের কোনো ক্ষতি হলে এর দায় সরকারকেই নিতে হবে।

সরকার বিনা ভোটে ক্ষমতায় থাকতে গিয়ে আকাশছোঁয়া অহংকারে ভুগছে। অহংকারের কারণে তাদের পতন অনিবার্য হয়ে উঠেছে। এসব বক্তব্য অমানবিক ও মনুষ্যত্বহীন। এরা নিজেদের ক্ষমতাকে নিশ্চিদ্র নিরাপদ মনে করলেও বেহুলার বাসরঘরের দরজার ছিদ্রের কথা ভুলে গেছে।

শনিবার নয়াপল্টনের বিএনপির কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন। কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে এ মানববন্ধনের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল।

রুহুল কবির রিজভী এ সময় আরও বলেন, সরকার প্রধানের নির্দেশেই জামিনযোগ্য মামলায় বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আটকে রেখে মুক্তিতে বাধার সৃষ্টি করা হচ্ছে। সরকারের বাধার কারণে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি মিলছে না। প্রধানমন্ত্রীর প্রতিহিংসার আগুনে বেগম জিয়ার জীবন এখন সংকটাপন্ন। আমরা তার অবনতিশীল শারীরিক অবস্থা নিয়ে বারবার তার সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানালেও সরকার গায়ের জোরে সেই দাবিকে অগ্রাহ্য করছে।

রিজভী বলেন, বর্তমানে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা এতটাই অবনতিশীল যে, তিনি বর্তমানে বিছানা থেকেও উঠতে পারছেন না। অথচ সরকারের মন্ত্রীদের বক্তব্য শুনলে মনে হয় মিডিয়ার সামনে ভিন্ন ধরনের কথা বললেও ভেতরে ভেতরে বেগম জিয়ার চিকিৎসা ও অসুস্থতা নিয়ে নিষ্ঠুর তামাশা করে যাচ্ছেন।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন মহিলা দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি নুরজাহান ইয়াসমিন, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খান, মানব উন্নয়নবিষয়ক সম্পাদক ফারহানা ইয়াসমিন আতিকা, মহিলা দল নেত্রী মুকুল আক্তার অনা, শাহজাদী কহিনুর পাঁপড়ী প্রমুখ।

আরও পড়ুন: জনগণকে দেওয়া কথা রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী: রেলমন্ত্রী

মানববন্ধন শেষে রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল হয়। এদিকে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের কর্মসূচি শেষে একই দাবিতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৫ জুন, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন