হোয়াইট হাউস সাদা কেন

হোয়াইট হাউস সাদা কেন
হোয়াইট হাউস। ছবি: সংগৃহীত।

হোয়াইট হাউসের নাম প্রথমে হোয়াইট হাউস ছিল না। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের বাসভবন ও সরকারি অফিস বলে একে প্রেসিডেন্টস প্যালেস, প্রেসিডেন্টস হাউস এক্সিকিউটিভ ম্যানশন এমন বহু নামেই ডাকা হতো। ১৭৯২ সালে এই প্রাসাদের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছিল। শেষ হয় ১৮০০ সালে।

যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে ব্যয়বহুল প্রাসাদ হিসেবে একে আখ্যায়িত করা হতো তখন। সে সময়ই হোয়াইট হাউসের নির্মাণ ব্যয় ছিল ২ লাখ ৩২ হাজার ডলারেরও বেশি। জন্মসূত্রে আয়ারল্যান্ডের অধিবাসী জেমস হোবান এর নকশা তৈরি করেন। তখন বিল্ডিংটি তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছিল ধূসর রঙের পাথর। তাই হোয়াইট হাউস যে সাদা রঙের ছিল না, এ কথা স্পষ্ট। অবশ্য শুরু থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন হিসেবে এটি ব্যবহৃত হয়।

আরো পড়ুন: হোয়াইট হাউস নতুনভাবে সাজাতে যত টাকা পাবেন বাইডেন

নির্মাণ সম্পন্ন হওয়ার ১২ বছর পরের কথা। ১৮১২ সালে ইংল্যান্ডের সঙ্গে যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে যুক্তরাষ্ট্র। যুদ্ধ চলাকালে ১৮১৪ সালের ২৪ আগস্ট ব্রিটিশ সেনাবাহিনী হোয়াইট হাউস জ্বালিয়ে দেয়। বেশ ভালোভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ভবনটি। জেমস হোবানের পরামর্শ মতো আবার এটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। শেষ হয় ১৮১৭ সালে। পোড়া দাগে ভবনটিকে চেনাই দায় ছিল। যে কারণে নির্মাণ কাজের শেষ পর্যায়ে নতুন রং লাগানো হয়।

বিল্ডিংটির বিভিন্ন জায়গায় তখন আগুন ও ধোঁয়ার দাগ ঢাকতে এর দেয়ালে সাদা রং দেওয়া হয়। ধবধবে সাদা এই বাড়িকে তখন থেকেই ‘হোয়াইট হাউস’ বা সাদা বাড়ি বলে ডাকেন অনেকে। অবশ্য সরকারিভাবে হোয়াইট হাউস নামের প্রবর্তন হয় আরও পরে। প্রায় ৮৫ বছর। ১৯০১ সালে আমেরিকার তৎকালীন প্রেসিডেন্ট থিয়েডোর রুজভেল্ট সরকারিভাবে বিভিন্ন কাগজপত্রে এই নামটি ব্যবহার করেন।

ইত্তেফাক/এএইচপি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x