নেয়াখালীতে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ প্রতিরোধে গণসমাবেশ

নেয়াখালীতে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ প্রতিরোধে গণসমাবেশ
নেয়াখালীতে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ প্রতিরোধে গণসমাবেশ।ছবি: ইত্তেফাক

নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ প্রতিরোধে জাগো বাংলাদেশ শ্লোগানকে সামনে রেখে বুধবার সকালে জেলা শহর মাইজদীর মুজিব চত্বরে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জেলা নারী অধিকার জোট, নাগরিক অধিকার সহায়ক জোটসহ বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী সংগঠনের আয়োজনে পক্ষকালব্যাপী নারী নির্যাতন বিরোধী সাইকেল শোভাযাত্রা , ইউনিয়ন ভিত্তিক নারী নিপীড়নবিরোধী প্রতিরোধ চক্র, উন্মুক্ত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

পক্ষকালব্যাপি নারী নির্যাতন ও প্রতিরোধ বিরোধী পক্ষের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক খোরশেদ আলম খান। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেলা পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন।

অন্যদের বক্তব্য রাখেন-নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ প্রতিরোধে বাংলাদেশের নোয়াখালী কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ও এনআরডিএস’র প্রধান নির্বাহী আবদুল আউয়াল, যুগ্ম আহ্বায়ক ও জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মোল্লা হাবিবুর রাছুরল মামুন, নারী অধিকার জোটের আহ্বায়ক লায়লা পারভীনসহ বিভিন্ন নারী অধিকার ও মানবাধিকার সংগঠনের নেতারা ।

সমাবেশে বক্তারা দেশের প্রত্যেকটি গ্রামে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সক্রিয় ভূমিকার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তারা নারী পুরুষ সমতা নিশ্চিতে স্থানীয় সরকার পরিষদ সদস্যদের সজাগ দৃষ্টি রাখা, দ্রুততম সময়ে বিচারকার্য নিশ্চিত করা, যুবকদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। উদ্বোধনী এ সমাবেশে অংশগ্রহণ করেন জেলার বিভিন্ন উন্নয়ন সংগঠন, পেশাজীবী সংগঠন, শিক্ষার্থী, সাংস্কৃতিক কর্মী ও নাগরিক প্রতিনিধিগণ।

তারুণ্যের সাইকেল শোভাযাত্রা

একই শ্লোগানকে সামনে রেখে বুধবার সকালে পৃথকভাবে জেলা শহর মাইজদীতে নারীর প্রতি সহিংসতা বিরোধী তারুণ্যের সাইকেল শোভাযাত্রা বের করা হয়। এ শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন-পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন, নারী অধিকার নেত্রী নুর নাহার রিনি, জেলা স্কাউটের সেক্রেটারি আহম্মদ হোসেন ধনু ও প্রাণের প্রধান নির্বাহী নুরুল আলম মাসুদ। বঙ্গবন্ধু স্কয়ারের সামনে থেকে সাইকেল শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণকারীরা ধর্ষণ ও যৌন হয়রানি বন্ধ করা, নারীদের ঘরে-বাইরে-কর্মস্থলে-পরিবহনে নিরাপদ চলাচল নিশ্চিত করা, ধর্মীয়সহ সব ধরনের সভা-সমাবেশে নারীবিরোধী বক্তব্য বন্ধ করা, যৌন হয়রানি সংক্রান্ত মামলার তদন্তে বিচার বিভাগীয় তদন্ত চালু করার দাবি জানান।

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষব্যাপী প্রচারণার অংশ হিসেবে জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিলের সহায়তায় পার্টিসিপেটরি রিসার্চ অ্যাকশন নেটওয়ার্ক–প্রাণ, নোয়াখালী জেলা স্কাউট এবং একশানএইড বাংলাদেশ যৌথভাবে সাইকেল মার্চের আয়োজন করে।

ইত্তেফাক/এএএম

Nogod
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত