ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২ ফাল্গুন ১৪২৬
১৯ °সে

সীতাকুণ্ডে ইয়াবা ব্যবসায়ী ও পুলিশ সংঘর্ষ, অফিসারসহ আহত ৪

সীতাকুণ্ডে ইয়াবা ব্যবসায়ী ও পুলিশ সংঘর্ষ, অফিসারসহ আহত ৪
সীতাকাণ্ড। ছবিঃ গুগল ম্যাপ থেকে।

সীতাকুণ্ডে এক ইয়াবা ব্যবসায়ীকে পুলিশের কাছে থেকে ছিনিয়ে নেওয়ার সময় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে এসআইসহ পুলিশের ৪ জন আহত হয়েছে। পরে আরো পুলিশ ফোর্স গিয়ে আওয়ামী লীগ নেতার অফিস থেকে ইয়াবা ব্যবসায়ীসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করে।

এলাকাবাসী ও মামলা সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাত ৯টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৮নং সোনাইছড়ি ইউনিয়নস্থ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে ফুলতলা রাস্তার মাথায় ইয়াবা ব্যবসায়ী যুবলীগ নেতা অহিদুল আলমসহ কয়েকজন ইয়াবা বিক্রির উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে বলে পুলিশ জানতে পারে। এ সংবাদ পেয়ে থানার এসআই হারুনুর রশিদ ও এসআই আমির হামজা ঘটনাস্থলে গিয়ে অহিদকে ইয়াবাসহ আটক করে। তাকে আটক করে পুলিশের ব্যবহৃত মাইক্রোতে (চট্টঃমেঃ-চ-১১-৩৫২৩) তুলে নিয়ে আসার সময় অহিদের সাঙ্গপাঙ্গরা গাড়িতে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করা শুরু করে। এতে উভয় পক্ষে সংঘর্ষ বেধে যায়।

অহিদকে তার সঙ্গীরা ছিনিয়ে নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ চট্টগ্রাম উত্তর জেলা সদস্য মোঃ ইদ্রিছের অফিসে যায়। থানার অফিসার ইনচার্জের ভারপ্রাপ্ত দায়িত্বে থাকা ওসি (অপারেশন) মোঃ জাব্বারুল ইসলাম সংঘর্ষের ঘটনা শুনে বিপুল পরিমান পুলিশ ফোর্সসহ গিয়ে হ্যান্ডকাপ পরা অবস্থায় অহিদসহ ৬ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

পুলিশ অহিদের দেহ তল্লাশী করে ১৩৬ পিচ ইয়াবা পায়।পুলিশের ওপর হামলাকারী আটককৃত অন্যরা হলো, মোঃ সাহাব উদ্দিন (৪২), সাদেক (২৫),নুর উদ্দিন(৩১),নয়ন(২৪) ও আলাউদ্দিন(৩৮)। আটককৃত সকলের বাড়ি সীতাকুণ্ড ও মিরসরাই উপজেলায়। কয়েক মাস পূর্বে ইয়াবা ব্যবসায়ী অহিদ ইয়াবাসহ আটক হয়ে কয়েকবার জেলও খাটে।

ইয়াবা ব্যবসায়ীর সাঙ্গপাঙ্গ সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতর আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন, এসআই হারুনুর রশিদ, এএসআই হাসান তারেক, কনস্টেবল মোঃ সোহেল ও মোঃ সোহাগ। ইয়াবা ব্যবসায়ীকে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা এলাকায় মহা চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

এদিকে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মোঃ ইদ্রিছ জানান, ‘পুলিশ সোনাইছড়ি ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক অহিদকে ইয়াবার মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানোর জন্য চেষ্টা করে। পুলিশের হ্যান্ডাকাপ পরা অবস্থায় অন্যরাসহ পরবর্তীতে আমার অফিসে এসে অবস্থান নেয়। পুলিশ এলাকায় আতংক সৃষ্টির উদ্দেশ্য একাধিক রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে।’

আরও পড়ুনঃ আগৈলঝাড়ায় যৌতুকের নির্যাতনের শিকার গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

এ ব্যাপারে মডেল থানার ওসি অপারেশন মোঃ জাব্বারুল ইসলাম বলেন, ‘অহিদ একজন মাদক ব্যবসায়ী। কয়েক মাস পূর্বে সে ইয়াবাসহ আটক হয়ে জেলও খাটে। তার বিরুদ্ধে সরকারী কাজে বাঁধা, পুলিশের ওপর হামলা, গাড়ি ভাংচুর ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন