ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
২৭ °সে


নারী চিকিৎসককে যৌন হয়রানি, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা নালিশ করেছিলেন চেয়ারম্যানের কাছে

নারী চিকিৎসককে যৌন হয়রানি, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা নালিশ করেছিলেন চেয়ারম্যানের কাছে
গৌরীপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নারী চিকিৎসককে হয়রানি মামলায় গ্রেফতার বখাটে রুবেল। ছবি: ইত্তেফাক

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে রোগী সেজে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক নারী চিকিৎসককে (মেডিকেল অফিসার) উত্ত্যক্তের অভিযোগে রুবেল খান (২৫) নামে এক বখাটেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত বুধবার (২৪এপ্রিল) দিবাগত রাতে নেত্রকোনা জেলা সদরের পারলা বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। অভিযুক্ত রুবেল উপজেলার বোকাইনগর ইউনিয়নের গড়পাড়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে।

জানা যায়, ২/৩মাস আগে রুবেল খান হাঁটুর ব্যথা নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ওই নারী চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসার জন্য আসেন। প্রয়োজনীয় ওষুধের একটি ব্যবস্থাপত্র নিয়ে পরদিন আবারও রুবেল তার কাছে আসেন অন্য রোগ দিয়ে। আবারও প্রয়োজনীয় ওষুধের একটি ব্যবস্থাপত্র লিখে দেন ওই নারী চিকিৎসক। এর পর থেকে মাঝে মাঝেই রুবেল ওই চিকিৎসকের কাছে আসতে থাকে।

বিষয়টি নিয়ে তিনি স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (ইউএইচও) ডা. মো. রবিউল ইসলামকে জানান। কিন্তু হাসপাতাল থেকে তাকে কোনো ধরণের সাহায্য করা হয়নি। বরং স্থানীয় ব্যক্তির ঘটনা নিয়ে বাড়াবাড়ি না করতে পরামর্শ দেন ওই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা।

ঘটনা অনুসন্ধানে জানা গেছে, ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আগেও দুইজন মহিলা ডাক্তার একই হয়রানির শিকার হয়েছিলেন। তখন প্রশাসনিক ভাবে ওই নারী চিকিৎসকদের সহযোগিতা করেন নাই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (ইউএইচও) ডা. মো. রবিউল ইসলাম। পরে বাধ্য হয়ে তারা ওই হাসপাতাল ত্যাগ করেন।

গত শনিবার গৌরীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিজ কক্ষে খাবার খাওয়ার সময় রুবেল বিনা অনুমতিতে ওই চিকিৎসকের কক্ষে প্রবেশ করে। পরে একটি গুড়ো দুধের প্যাকেট তার টেবিলে ছুঁড়ে ফেলে। বিষয়টি স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. রবিউল ইসলাম জানালে বিষয়টি তিনি পুলিশকে না জানিয়ে এলাকার স্থানীয় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শিউলি চৌধুরীকে জানান এবং স্থানীয় ভাবে মিমাংসা করার অনুরোধ জানান।

বাসেও চিকিৎসককে উত্যক্ত করতে থাকে রুবেল। পরে সিভিল সার্জন, ময়মনসিংহের পরামর্শে গৌরীপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে সিভিল সার্জন, ময়মনসিংহে বলেন, ‘ওই নারী চিকিৎসক উত্ত্যক্তের শিকার হয়ে আমার বাসায় আসেন। পরে আমি তাকে থানায় অভিযোগ করার পরামর্শ দেই। আমিও থানায় নির্দেশ দিয়েছি যাতে পুলিশ রুবেল নামে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে।’

গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা (ইউএইচও) ডা. মো. রবিউল ইসলাম জানান, তিনি নারী চিকিৎসককে উত্ত্যক্তের ঘটনা জেনেছেন তিনদিন আগে। এর আগে তিনি কিছুই জানতেন না। তিনি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে রুবেলের বিরুদ্ধে নালিশ করেছেন। চেয়ারম্যান বিচারের আশ্বাস দিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন: কুমিল্লায় স্কুলছাত্র মিরণ হত্যা মামলায় ২ জন গ্রেফতার

বুধবার দিবাগত রাত ৩টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গৌরীপুর থানার উপপরিদর্শক বিপ্লব সরকার ও রুহুল আমিনের নেতৃত্বে গৌরীপুর থানার পুলিশের একটি টিম রুবেলকে নেত্রকোনা জেলা সদরের পারলা বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, বখাটে রুবেলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে কোর্টে প্রেরণ করার প্রস্তুতি চলছে।

ইত্তেফাক/অনি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২১ মে, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন