আছমিনাকে আগুনে পোড়ানোর ঘটনায় শাশুড়ি গ্রেফতার

আছমিনাকে আগুনে পোড়ানোর ঘটনায় শাশুড়ি গ্রেফতার
স্বামীর দেওয়া আগুনে শরীরের বেশিরভাই অংশ পুড়ে যায় আছমিনা বেগমের। ছবি: ইত্তেফাক

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় গৃহবধূকে আগুনে পোড়ানোর ঘটনায় দায়ের করা মামলায় শাশুড়ি কমই বেগমকে (৫০) বৃহস্পতিবার ভোরে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। ওসির উদ্যোগে বুধবার (১২ জুন) রাতে ওই গৃহবধূকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, বিক্রির জন্য কানের সোনার অলংকার না পেয়ে আছমিনা বেগম (২৫) নামের ওই গৃহবধূকে তার স্বামী আগুনে পুড়িয়ে দগ্ধ করে। আগুনে তার শরীরের বেশির ভাগ অংশ পুড়ে যায়। গত ৪ জুন ভোরে উপজেলার বড়লেখা সদর ইউনিয়নের মুছেগুল গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। পরে ১১ জুন বাবা ছমির উদ্দিন বাদি হয়ে আছমিনার স্বামী ও শাশুড়িকে আসামি করে বড়লেখা থানায় মামলা দায়ের করেন।

আরও পড়ুন: ভণ্ড ফকিরের আস্তানায় যৌন উত্তেজক বড়ি খেয়ে একজনের মৃত্যু

বড়লেখা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইয়াছিনুল হক জানান, ওরা খুবই গরিব। মেয়েটির চিকিৎসা আমরাই করাবো। উপজেলা চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ সার্বিক সহযোগিতা করেছেন। ঢাকায় চিকিৎসক ও আছমিনার সঙ্গে কথা হয়েছে। স্বামী পলাতক আছে। তাকে গ্রেফতারে অভিযান চালানো হচ্ছে।

ইত্তেফাক/অনি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত