ঢাকা মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬
৩৩ °সে

২২ দিন পর গাইবান্ধার সঙ্গে ঢাকার ট্রেন চলাচল শুরু

২২ দিন পর গাইবান্ধার সঙ্গে ঢাকার ট্রেন চলাচল শুরু
গাইবান্ধায় সংস্কার করা রেল লাইন। ছবি: ইত্তেফাক

বন্যায় ২২ দিন বন্ধ থাকার পর গাইবান্ধার সঙ্গে ঢাকার সরাসরি ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা লালমনিরহাটগামী আন্তঃনগর লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনটি বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা ৫০মিনিটে গাইবান্ধা স্টেশনে পৌঁছে। পরে ৫ মিনিট যাত্রা বিরতি দিয়ে এই রুটে লালমনিরহাটের উদ্দেশে গাইবান্ধা রেল স্টেশন ছেড়ে যায়।

এ সময় রাজশাহীস্থ বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী আফজাল হোসেনসহ রেলওয়ের অন্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ওই ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনে উঠে বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করেন।

গাইবান্ধা স্টেশন মাস্টার আবুল কাশেম জানান, এই রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ হবার পর থেকে লালমনিরহাট থেকে গাইবান্ধা এবং সান্তাহার থেকে বোনারপাড়ার মধ্যে লোকাল ও মেইল ট্রেনগুলো চলাচল করতো। রংপুর ও লালমনিরহাট থেকে আন্তঃনগর ট্রেন ঢাকায় চলাচল করতো পার্বতীপুর ও সান্তাহার ভায়া হয়ে। বৃহস্পতিবার থেকে তা স্বাভাবিক হল। এখন গাইবান্ধা থেকে ঢাকা সরাসরি ট্রেন চলাচল শুরু হলো।

আরো পড়ুন : ঘরে ফেরা শুরু

প্রসঙ্গত, গত ১৭ জুলাই গাইবান্ধার ত্রিমোহিনী-বাদিয়াখালী-বোনারপাড়া জংশন পর্যন্ত এক হাজার ফুট রেললাইনের নিচের মাটি ও পাথর বন্যার পানিতে ভেসে যায়। এ ছাড়া একাধিক স্থানে বড় গর্তের সৃষ্টি হয়। ফলে ওই দিন থেকে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে এই রুটে চলাচলকারী করতোয়া এক্সপ্রেস ট্রেনটি সান্তাহার থেকে গাইবান্ধার বোনারপাড়া পর্যন্ত চলাচল করে। এছাড়া দোলনচাঁপা এক্সপ্রেস ট্রেনটি দিনাজপুর থেকে গাইবান্ধা, সেভেনআপ ও এইট ডাউন মেইল ট্রেনটি পঞ্চগড় থেকে গাইবান্ধা পর্যন্ত সাময়িকভাবে চলাচল করে। রংপুর ও লালমনিরহাট এক্সপ্রেস ট্রেন দুটি কাউনিয়া-পার্বতীপুর-সান্তাহার রুট ব্যবহার করে ঢাকায় যাওয়া-আসা করে।

ইত্তেফাক/ইউবি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
০৭ এপ্রিল, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন