ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২১ °সে


শিবচরে রেজাউল করিম তালুকদারের দাফন সম্পন্ন

শিবচরে রেজাউল করিম তালুকদারের দাফন সম্পন্ন
ছবি: ইত্তেফাক

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য, শিবচর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, উপজেলা আওয়ামী লীগের দীর্ঘদিনের সাবেক সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. রেজাউল করিম তালুকদারের দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

রবিবার (২০ অক্টোবর) রাষ্ট্রীয় মর্যাদা ও জানাজা শেষে মাদারীপুরের শিবচরে দ্বিতীয়খন্ড গ্রামের তালুকদার বাড়ি জামে মসজিদের পাশে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁর দাফন করা হয়।

এর আগে প্রায় লক্ষাধিক মানুষের উপস্থিতিতে বেলা ১১ টার দিকে শিবচর উপজেলার হাতির বাগান মাঠে মরহুমের ২য় নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

আরও পড়ুন: ২৩ শিক্ষকের কাছে ‘সর্বহারা’ পরিচয়ে মোটা অংকের চাঁদা দাবি

জানাজায় জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ ও আওয়ামী লীগ সংসদীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটন এমপি, ফরিদপুর-৪ ভাঙ্গ-সদরপুর-চরভদ্রাসন আসনের দুই বারের সফল সংসদ সদস্য মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন, মাদারীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শাজাহান খান, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রমবিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক মেধাবী ছাত্রনেতা ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মুনির চৌধুরী, চিফ হুইপের সেজো ভাই রিপন চৌধুরী, মাদারীপুর জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম, মাদারীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিয়াজদ্দিন খান, মাদারীপুর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ দে, মাদারীপুর পৌর মেয়র খালিদ হোসেন ইয়াদ, শিবচর উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. শামসুদ্দিন খান, রাজৈর উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ মোতালেব মিয়া, কালকিনি উপজেলা চেয়ারম্যান মীর গোলাম ফারুক, শিবচর পৌর মেয়র আওলাদ হোসেন খান, শিবচর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. আসাদুজ্জামান, সহকারী কমিশনার ভূমি আল নোমান, সহকারী পুলিশ সুপার (শিবচর ও রাজৈর সার্কেল) মো. আবির হোসেন, শিবচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ, শিবচর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল লতিফ মুন্সী, সাধারণ সম্পাদক ডা: মো. সেলিম, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বিশিষ্ট ঠিকাদার তোফাজ্জেল হোসেন খানসহ (তোতা) জেলা-উপজেলার বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তাবৃন্দ, জেলা-উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন কমিটির নেতৃবৃন্দ এবং জনপ্রতিনিধিসহ অগণিত দলীয় নেতাকর্মী ও সর্বস্তরের মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে মরহুমের কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। বাংলাদেশ ফরায়েজী আন্দোলনের প্রবর্তক হাজী শরীয়ত উল্লাহর বাহাদুরপুর পীর মঞ্জিলের বর্তমান পীর মাওলানা আব্দুদুল্লাহ মোহাম্মদ হাসান মরহুমের নামাজে জানাজায় ইমামতি করেন।

এ সময় মরহুমের পুত্র দ্বিতীয়খন্ড ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুম তালুকদার তার বাবার সম্পর্কে কিছু কথা বলেন। এর আগে গত শনিবার (১৯ অক্টোবর) বিকালে ঢাকাস্থ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মরহুমের ১ম জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় জানাজায় অংশ নেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফম বাহাউদ্দিন নাসিমসহ অনেকই।

উল্লেখ্য, মরহুম বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. রেজাউল করিম তালুকদার (১৮ অক্টোবর) ভোর পাঁচটায় ঢাকার ইবনে সিনা হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, এক মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মরহুমের রাজনৈতিক জীবন ও তাঁর ত্যাগের কথা তুলে ধরে চিফ হুইপ আবেগাপ্লুত হয়ে কান্না জড়িত কণ্ঠে তার বক্তব্যে বলেন, আমার পিতা মারা যাওয়ার পরে আমাকে এই রেজাউল কাকার হাতে তুলে দিয়েছিলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই থেকে আমার পরিবার ও শিবচরের আওয়ামী লীগের প্রতি রেজাউল করিম তালুকদারের অবদানের কোন বিকল্প নেই। রেজাউল করিম তালুকদারের মৃত্যুর সংবাদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। রেজাউল কাকার দলের প্রতি ত্যাগ ও ভালোবাসা কোন দিন ভুলে যাওয়ার নয়। তার মৃত্যুতে শিবচরবাসী একজন প্রকৃত দলীয় অবিভাবক হারালো। তাঁর শূন্যতা কোনভাবে পূরণ হবে না।

ইত্তেফাক/এএএম

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৯ নভেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন