ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬
২৯ °সে


নেহরুর জন্যই কাশ্মীরের ভাগ পেয়েছে পাকিস্তানঃ অমিত শাহ

নেহরুর জন্যই কাশ্মীরের ভাগ পেয়েছে পাকিস্তানঃ অমিত শাহ
অমিত শাহ ও জওহরলাল নেহরু। ফাইল ছবি

পাকিস্তান অধিকৃত আজাদ কাশ্মীরের জন্য ভারতের প্রথম প্রাধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুকে দায়ী করেছেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সংবিধানের ৩৭০ ধারা নিয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে রবিবার এক অনুষ্ঠানে একথা বলেন বিজেপি এই নেতা।

কাশ্মীরের একটি ভাগ পাকিস্তান পাওয়ার জন্য নেহরুকে দায়ী করে তিনি বলেন, 'পাকিস্তানের সঙ্গে যদি নেহরু অসময়ে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা না করতেন, তাহলে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের অস্তিত্ত্ব থাকত না...নেহরু সামলানোর চেয়ে কাশ্মীর সামলাতে পারতেন সর্দার প্যাটেল...রাজাদের অধীনে থাকা রাজ্যগুলি সামলেছেন সর্দার প্যাটেল এবং সেগুলি ভারতের অংশ হয়েছে।'

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাবি করেন, জওহরলাল নেহেরু জম্মু ও কাশ্মীরে বিশেষ মর্যাদা দিয়েছিলেন, এবং তার পর থেকেই উপত্যকায় সন্ত্রাসবাদ বাড়তে থাকে। সন্ত্রাসবাদের চিত্র তুলে ধরতে এসময় তিনি বলেন, '৪০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে, এবং কাশ্মীরী পণ্ডিত, সুফি, এবং শিখদের, ১৯৯০ থেকে ২০০০ –এই ১০ বছরে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।'

৫ আগস্টে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা বা ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করে ভারত সরকার। পাশাপাশি রাজ্যটিকে ভেঙে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করা হয়। তারপর থেকেই সেখানে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয় এবং যে কোনরকম অবাঞ্চিত ঘটনা এড়াতে রাজনৈতিক নেতাদের গৃহবন্দি করে রাখা হয়। এই নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিজেপি-বিরোধীরা। বিষয়টিকে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক মঞ্চে নিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে পাকিস্তান। এছাড়া বেশ কয়েকটি দেশ ও সংস্থাও কাশ্মীর বিষয়ে তাদের উদ্বেগ প্রকাশ করে এবং দ্রুত সমস্যা সমাধানের জন্য ভারতকে তাগাদা দেয়।

সংবিধানের ৩৭০ ধারা নিয়ে বিজেপির অবস্থান ব্যাখা করতে গিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, '৩৭০ ধারা প্রত্যাহারে রাজনীতি দেখছে কংগ্রেস, আমরা এভাবে দেখি না...আমাদের কাছে, এটা জাতীয়তাবাদের বিষয়। “এক দেশ, এক প্রধানমন্ত্রী, এক সংবিধান” নীতিতে বিশ্বাস করে আমার দল।'

এরপরই কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীকে উদ্দেশ্য করে বিজেপি এই নেতা বলেন, 'রাহুল গান্ধী বলেন, ৩৭০ ধারা একটি রাজনৈতিক ইস্যু। বাবা রাহুল, আপনি এখন রাজনীতিতে এসেছেন, কিন্তু ৩৭০ ধারা বিলুপ্তির জন্য কাশ্মীরে তিন প্রজন্ম ধরে জীবন দিয়েছে বিজেপি। আমাদের কাছে এটা রাজনৈতিক ইস্যু নয়। ভারত মাকে অখণ্ড রাখতে এটা আমাদের লক্ষ্য।'

আরও পড়ুন: জামালপুরের মেলান্দহে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

আজাদ কাশ্মীর (পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীর অংশ) সৃষ্টির ব্যাপারে ১৯৪৭ এর দেশভাগের ইতিহাস টেনে অমিত শাহ বলেন, '১৯৪৭-এ অসময়ে যুদ্ধবিরতির জন্য এটা হয়েছ। কাশ্মীরের গঠনহীনতার জন্য দায়ী জওহরলাল নেহরু এবং সমস্যাটি সমাধান করতে পারতেন দেশের প্রথম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল।'

ইত্তেফাক/মিশু

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন