শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

নিখোঁজের তিন ঘণ্টা পর জঙ্গল থেকে মারুফার পোড়া লাশ উদ্ধার

আপডেট : ২৯ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮:১১

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের কদমরসুলপুর গ্রামে জঙ্গল থেকে এক কিশোরীর আগুনে পোড়া ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত কিশোরীর নাম মারুফা (১৫) খাতুন। তার পিতার নাম মো. মজিবুর রহমান। গভীর রাতে নিখোঁজের পর থেকেই হন্নে হয়ে মারুফাকে খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন পরিবারের সদস্যরা। 

ঘটনার তিন ঘণ্টা পর তাদের মেয়েকে খোঁজে পেলেও সেই মারুফার অবস্থা দেখে বাকরুদ্ধ পরিবারের সদস্যরা। বুধবার (২৯ ডিসেম্বর) ভোররাতে কদমরসুলপুর গ্রামের মাইজপাড়া এলাকার নির্জন চৌরাভিটা জঙ্গল থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশে হাত ও পায়ে বাঁধার দাগ ছিল।

নিহত মারুফা ২০১৮ সালে ত্রিশাল উপজেলার রায়েরগ্রাম আইয়ুবীয়া দাখিল মাদ্রাসা থেকে ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। করোনা শুরু হওয়ার পর সে পড়ালেখা বন্ধ করে দেয়।

গফরগাঁও থানা পুলিশ মারুফার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। নিহতের দিনমজুর পিতা মুজিবুর রহমান (৫১) জানান, বরাবরের মতই তার মেয়ে মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে রাতের খাবার শেষে তার ছোট বোন রহিমা আক্তারের সঙ্গে একই বিছানায় ঘুমিয়ে পড়ে। গভীর রাতে মারুফা প্রকৃতির ডাকে ঘর থেকে বের হয়ে আর ফিরে না আসায় ছোট মেয়ে সেই খবর তার পিতা-মাতাকে জানায়। 

মারুফার পিতা তার দুই ভাইকে নিয়ে রাতেই তাকে খুঁজতে বের হয়। ভোর রাতে (৫টার দিকে) বাড়ি থেকে চারশত গজ দুরে নির্জন চৌরা ভিটা জঙ্গলে তার মেয়ের আগুনে পোড়া ক্ষত বিক্ষত লাশ পড়ে থাকতে দেখে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। সিআইডি পুলিশের ক্রাইমসিনের সদস্যরা জায়গাটি ঘিরে রেখেছে। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এ  ঘটনার একশ গজ দুর থেকে পুরুষের একজোড়া জুতা উদ্ধার করে থানা পুলিশ।

মারুফার মা বেদেনা আক্তার (৪৮) জানায়, তার মেয়ে পর্দা করতো তবে একটু বোকা ধরনের ছিল। সব সময় হাসতো। এই জন্য তাকে কবিরাজি চিকিৎসাও দেওয়া হয়েছিল। কিভাবে এই নৃশংস ঘটনা ঘটলো তা সে ধারনা করতে পারছে না।

মারুফার বোন রসুলপুর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী রহিমা (১৪) জানায়, রাতে খাবার খেয়ে তার বোন মারুফা তার সাথেই ঘুমিয়ে ছিল। প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিয়ে গভীর রাতে মারুফা ঘর থেকে বের দীর্ঘক্ষণ পরেও ফিরে না আসায় বাবা-মাকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে সে ঘটনাটি জানায়।

মারুফা চাচী আজিরা খাতুন (৩৫) ভোরবেলায় জঙ্গল থেকে মারুফার লাশ উদ্ধারের খবর তারা জানতে পারে।
গফরগাঁও থানার ওসি ফারুক আহম্মেদ বলেন, লাশটি আগুনে পোড়ানো ছিল। হাত ও পায়ে বাঁধার দাগ ছিল। তদন্ত ছাড়া হত্যার কারণ বলা যাচ্ছে না।

 

ইত্তেফাক/এসআই