শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

রাজবাড়ীতে সওজ’র জায়গায় বাড়ছে অবৈধ স্থাপনা

আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০২২, ১৩:৩৩

রাজবাড়ী সদর উপজেলার গোয়ালন্দ মোড়ের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের (সওজ) জায়গা দখল করে চলছে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের কাজ। দীর্ঘদিন গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় সওজ’র জায়গার অবৈধ দখল উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত না হওয়ায় দিন দিন বেড়েই চলেছে এ সকল অবৈধ দখল ও স্থাপনা নির্মাণ।

এ ব্যাপারে গত ৯ জানুয়ারি রাজবাড়ী সওজ’র পক্ষ থেকে অবৈধ ৯ জন দখলদারকে ৩ দিনের মধ্যে নির্মাণাধীন স্থাপনা অপসারণের জন্য পৃথকভাবে নোটিশ প্রদান করা হয়েছে। 

রাজবাড়ী সওজ’র উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী (চঃ দাঃ) মোঃ আশরাফুল হামিদের স্বাক্ষরিত নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘আপনি আহলাদীপুর-রাজবাড়ী-পাংশা-কুমারখালী-কুষ্টিয়া (আর-৭১০) আঞ্চলিক মহাসড়কের ১ম কিলোমিটারে সড়ক বিভাগ রাজবাড়ী এর মালিকানাধীন জমিতে অবৈধভাবে মহাসড়কের পার্শ্বে স্থাপনা নির্মাণ করছেন যা মহাসড়ক আইন (হাইওয়ে অ্যাক্ট) ১৯২৫ পরিপন্থী বিধায় এই নোটিশ প্রাপ্তির দিন হতে ০৩ (তিন) দিনের মধ্যে নির্মাণাধীন স্থাপনা অপসারণের জন্য অনুরোধ করা হলো। অন্যথায় আপনার বিরুদ্ধে সরকারী বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’ 

নোটিশ প্রাপ্ত অবৈধ ৯ জন দখলদার হলেন- রাজবাড়ী সদর উপজেলার শহীদওহাবপুর ইউনিয়নের আহলাদীপুর গ্রামের মৃত আইয়ুব আলী খানের ছেলে মো. শাহীন খান, মৃত মোসলেম শেখের ছেলে ইলিয়াস শেখ, মৃত আজগর শেখের ছেলে শানাল শেখ, সিরাজ পাটোয়ারীর ছেলে জয়নাল পাটোয়ারী, মৃত মুনতাজ শেখের ছেলে মোহন মিয়া, মৃত গোলাপ খানের ছেলে শহীদ খান, মৃত তমিজ উদ্দিনের ছেলে সৈয়দ আলী, মৃত আঃ শুকুর শেখের ছেলে মোহাম্মদ আলী ও খানখানাপুর গ্রামের মোঃ কাশেম।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, গোয়ালন্দ-রাজবাড়ী মুখী গোয়ালন্দ মোড়ের উত্তর পাশে জেলা পরিষদের নির্মিত পাবলিক টয়লেট থেকে রাজবাড়ী মুখী আঞ্চলিক মহাসড়কের পূর্ব পাশে বিভিন্ন আকৃতির ৯টি স্থাপনা নির্মাণের কাজ চলছে। বালি দিয়ে ভরাট কাজ শেষে এবং বাঁশ, কাঠ, টিন ও ঢালাই খুঁটি দিয়ে গড়ে তোলা হচ্ছে এক একটি দোকান ঘর। এগুলোর একটি সামনে ক্ষমতাসীন দল ও এর সহযোগী সংগঠন আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের শহীদওহাবপুর ইউনিয়ন শাখার নির্মাণাধীন কার্যালয়ের সাইনবোর্ড টানানো রয়েছে। এদের মধ্যে একটি ফলের দোকান ইতিমধ্যে চালুও করা হয়েছে। স্থাপনাগুলো ওঠানো হচ্ছে মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ বাঁকের একেবারে গা ঘেঁষে। এতে করে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আশংকা বিরাজ করছে। 

সওজের জমিতে অবৈধ স্থাপনা। ছবি: ইত্তেফাক

আরো জানা গেছে, রাজবাড়ী মুখী আঞ্চলিক মহাসড়কের পশ্চিম পাশে (কাদেরিয়া মার্কেট সংলগ্ন) সওজ’র জায়গা অবৈধভাবে দখল করে গত প্রায় ৪ বছর যাবত ৭টি দোকান ঘর ভাড়া দিয়ে অর্থ আদায় করছে একজন প্রভাবশালী। এমনকি সে দোকান ভাড়া নেয়া ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে প্রায় ২০ লক্ষ টাকা জামানতও নিয়েছে ! একইভাবে গোয়ালন্দ মোড়ের দক্ষিণ পাশে ফরিদপুর বাসস্ট্যান্ডের পাশ দিয়ে সওজ’র জায়গা দখল করে ১০/১২টি দোকান ঘর করা হয়েছে। দীর্ঘ দিন যাবৎ গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় সওজ’র জায়গার অবৈধ দখল উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত না হওয়ায় দিন দিন বেড়েই চলেছে এ সকল অবৈধ দখল ও স্থাপনা নির্মাণ।

এ ব্যাপারে রাজবাড়ী সওজ’র নির্বাহী প্রকৌশলী শাহরিয়ার শরীফ খান বলেন, বিষয়টি জানার পর সওজ’র সার্ভেয়ার সরেজমিন পরিদর্শন করে সওজ’র জায়গা অবৈধভাবে দখল করে স্থাপনা নির্মাণের সত্যতা পেয়ে দখলদারদের তালিকা করে এনেছে। দখলদারদের ৩ দিনের মধ্যে স্থাপনা অপসারণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তা না করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

ইত্তেফাক/এসজেড