শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

রাজশাহীতে ৪০ ছাড়ালো করোনা সংক্রমণের হার

আপডেট : ২০ জানুয়ারি ২০২২, ২০:০০

ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষিত রাজশাহীতে লাফিয়ে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। একদিনের ব্যবধানে উত্তরাঞ্চলের বিভাগীয় সদরের এ জেলায় করোনা সংক্রমণের হার বেড়েছে ১২ শতাংশেরও বেশি। এছাড়া এক সপ্তাহের ব্যবধানে করোনা শনাক্তের হার ৯ শতাংশ থেকে বেড়ে ৪০ শতাংশে পৌঁছেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত বুধবার (১৯ জানুয়ারি) রাজশাহীর দুই ল্যাবে ৩৭১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৪৯ জনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এদিন নমুনা পরীক্ষার অনুপাতে শনাক্তের হার ৪০ দশমিক ১৬ শতাংশে দাঁড়ায়। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল মলিকুলার ল্যাবে ৯৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫২ জনের করোনা শনাক্ত হয়। একই দিন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) ভাইরোলজি ল্যাবে ২৭৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৯৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আগের দিন মঙ্গলবার রাজশাহীর দুই ল্যাবে ২৩৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এদিন নমুনা পরীক্ষার অনুপাতে শনাক্তের হার ছিল ২৮ দশমিক ২৭ শতাংশ।

এছাড়া গত সোমবার রাজশাহীর দুই ল্যাবে ২০২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৬২ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ছিল ৩০ দশমিক ৬৯ শতাংশ। গত রবিবার রাজশাহীর দুই ল্যাবে ২৩৫ জনের নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে করোনা শনাক্ত হয়েছিল ৭৭ জনের। শনাক্তের হার ছিল প্রায় ৩৩ শতাংশ। অথচ গত শনিবার জেলায় করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল ২২৮ জনের। এর মধ্যে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছিল ২২ জন। এদিন শনাক্তের হার ছিল ৯ দশমিক ৬৫ শতাংশ। অর্থাৎ মাত্র এক সপ্তাহের ব্যবধানে রাজশাহীতে করোনা শনাক্তের গড় হার ৪০ শতাংশ অতিক্রম করেছে।

সূত্র জানায়, নতুন বছরের শুরু থেকেই সারাদেশের ন্যায় রাজশাহীতেও ক্রমশ বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। চলতি মাসে করোনা শনাক্তের সর্বোচ্চ হার দাঁড়িয়েছে গত বুধবারের রিপোর্টে। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহ থেকেই করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি বলে জানায় জেলা সিভিল সার্জন দপ্তর। সূত্র আরও জানায়, জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে জেলায় ৯৬০ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয় ৭৫ জনের। শতকরা হার ছিল ৭ দশমিক ৮১ শতাংশ। দ্বিতীয় সপ্তাহে সংক্রমণ বেড়েছে অন্তত ২ শতাংশ। ৮ থেকে ১৪ জানুয়ারি জেলায় ১ হাজার ৪৪২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৪৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এ সপ্তাহে করোনা শনাক্তের হার ছিল ৯ দশমিক ৯২ শতাংশ। সূত্র মতে, ১লা জানুয়ারি জেলায় ১৪২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৪ জনের করোনা ধরা পড়ে। করোনা শনাক্তের হার ২ দশমিক ৮২ শতাংশ। পরদিন এক লাফেই শনাক্তের হার দাঁড়ায় ৫ দশমিক ৪৫ শতাংশে। এরপর থেকে ক্রমেই বাড়ছে শনাক্তের হার। গত ৭ জানুয়ারি শনাক্তের হার নেমে আসে ২ শতাংশের নিচে। সেদিন নমুনা কম পরীক্ষা হওয়ায় শনাক্তের হারও কমে যায়। ১০ থেকে ১৪ জানুয়ারি ৫ দিনের চারদিনই করোনা শনাক্তের হার ছিল ১২ শতাংশের আশপাশে। এর আগে গত ১৬ জানুয়ারি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৩ দশমিক ১৯ শতাংশ করোনা শনাক্ত হয়।

এদিকে, রেকর্ড করোনা শনাক্তের দিনে গত বুধবার (১৯ জানুয়ারি) রামেক হাসপাতালে করোনা সংক্রমণে একজন মারা গেছেন। মৃতের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায়। রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালে করোনা সংক্রমণে মারা গেছেন একজন। বৃহস্পতিবার ১০৪ শয্যার রামেক করোনা ইউনিটে সকাল পর্যন্ত রোগী ভর্তি ছিলেন ৪৩ জন। এরমধ্যে রাজশাহীর ২৪ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৭ জন, নওগাঁর ৪ জন, নাটোরের ২ জন, পাবনার ৩ জন ও কুষ্টিয়ার ৩ জন রয়েছেন। ভর্তি রোগীদের মধ্যে করোনা পজেটিভ ২৬ জন, করোনার উপসর্গ রয়েছে ১২ জনের। করোনা ধরা পড়েনি ভর্তি ৫ জনের। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৩ জন। একই সময়ে সুস্থ হয়েছেন ৭ জন।

ইত্তেফাক/এমআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

চট্টগ্রামে করোনার নতুন সংক্রমণ নেই

রামেক হাসপাতালে করোনায় ৪ জনের মৃত্যু

করোনায় চট্টগ্রামে ৫৭৪ জন আক্রান্ত

করোনায় চট্টগ্রামে ৫৩৯ জন আক্রান্ত

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত ৫৪৯, মৃত্যু ১

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের করোনা ইউনিটে আরও ৫ জনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে কমছে করোনা সংক্রমণ

মমেকের করোনা ওয়ার্ডে ৫ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১১৪