শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ক্রাউড ফান্ডিং প্লাটফর্ম ‘উই আওয়ার্সে’র যাত্রা শুরু

আপডেট : ২২ নভেম্বর ২০১৮, ১১:২৩

তরুণ ও স্বাধীনধারার চলচ্চিত্র নির্মাতাদের প্রধান অন্তরায় অর্থসংকট। এমন অনেক নির্মাতা আছেন যারা অর্থসংগ্রহের অভাবে কাঙ্ক্ষিত চলচ্চিত্রটির নির্মাণ শুরু করতে পারছেন না বা নির্মাণের মাঝপথেই থেমে যাচ্ছেন।

 

চলচ্চিত্র নির্মাণ সহায়ক হিসেবে বিকল্প অর্থায়নের কথা চিন্তা করে দেশে শুরু হল ‘উই আওয়ার্স’ ক্রিয়েটিভ ফান্ডিং প্লাটফর্ম। এ প্লাটফর্মটির সাহায্যে নির্মাতারা চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য অর্থ সংগ্রহ করতে পারবেন।

 

‘দশে মিলি করি কাজ’- মানুষ এককভাবে সামান্য ও তুচ্ছ, ঐক্যবদ্ধ প্রয়াসে যে কোনো কঠিন কাজও সহজভাবে সমাধান করা যায়। গণঅর্থায়ন বিষয়টি অনেকটা এই প্রবাদের মতোই। বিকল্প ধারার সিনেমা নির্মাণের ক্ষেত্রে এদেশে একজন প্রযোজক খুঁজে পাওয়া বেশ দূরহ কাজ। এ দূরহ কাজটি সহজ করার একটি কার্যকর উপায় হতে পারে গণঅর্থায়ন বা ক্রাউডফান্ডিং।

 

ক্রাউড ফান্ডিং বা ক্রিয়েটিভ ফান্ডিং ভাবনাটি নতুন হলেও দেশের বাইরে এ পদ্ধতিতে প্রচুর সিনেমা বা সৃষ্টিশীল কাজের অর্থ-সংগ্রহ হয়েছে এবং হচ্ছে। বাংলাদেশে ৭ অক্টোবর ২০১৫ সালে ‘গণ-অর্থায়ন : স্বাধীন চলচ্চিত্র নির্মাণের সম্ভাবনা’ শীর্ষক আনুষ্ঠানিক প্রচারণার মাধ্যমে আবু সাইয়ীদ তার ‘সংযোগ’ সিনেমার গণ-অর্থায়ন শুরু করেন, পরবর্তীতে তানভীর মোকাম্মেলের কাহিনীচিত্র ‘রূপসা নদীর বাঁকে’-র জন্য গণ-অর্থায়নের আহ্বান করার হয়। তরুণ নির্মাতাদের মধ্যে যুবরাজ শামীম, খন্দকার সুমন, জায়েদ সিদ্দিকী প্রমুখ নির্মাতাগণ কাজ করেছেন গণঅর্থায়নে।

 

গণ অর্থায়নে চলচ্চিত্র নির্মাণ শুরু হলেও অর্থ-সংগ্রহের কাজটি মূলত ব্যক্তিগত উদ্যোগেই শুরু করেন নির্মাতারা। দেশীয় কোনো প্লার্টফর্ম না থাকায় অর্থসংগ্রহের পদ্ধতিটি খুব জটিল ও অনেক সময় কঠিন হয়ে পড়ে। অর্থসংগ্রহের পদ্ধতিটি খুব সহজ, স্বচ্ছ ও সরল করে করে যাত্রা শুরু করেছে ‘উই আওয়ার্স সিনেমা’র ক্রিয়েটিভ ফান্ডিং প্লাটফর্ম ‘উই আওয়ার্স’ ক্রাউড ফান্ডিং। বিকল্প চলচ্চিত্র পরিবেশনা প্রতিষ্ঠান ‘উই আওয়ার্স সিনেমা’র স্বাধীন চলচ্চিত্র অর্থায়ন ভাবনা থেকেই প্লাটফর্মটির যাত্রা শুরু।

 

ইতোমধ্যে টোকন ঠাকুরের নির্মানাধীন ‘কাঁটা’ চলচ্চিত্রের গণ-অর্থায়ন কার্যক্রম শুরু করেছে প্লার্টফর্মটি। এছাড়া বেশ কয়েকটি সিনেমার অর্থ-সংগ্রহের কার্যক্রম শুরুর পথে।

 

চলচ্চিত্র ছাড়াও থিয়েটার, বই প্রকাশনা, চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর টিকেটসহ সৃষ্টিশীল কাজের সহযোগী হতে চায় এ মাধ্যমটি। অর্থ-সংগ্রহ বা অর্থায়ন করতে ঢুঁ মারতে পারেন এই ঠিকানায়- www.whc.fund.

 

 

ইত্তেফাক/ইউবি