শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ভারতীয় গণতন্ত্রকে 'শোষণ' করতে পাক জামায়াতের কৌশল 

আপডেট : ০৬ মে ২০২২, ১৮:১৫

ডিসইনফোল্যাব একটি অলাভজনক সংস্থা যা বিভ্রান্তি মোকাবিলা করে এবং ভুয়া খবর এবং প্রোপ্যাগান্ডা রোধে কাজ করে। সংস্থাটি তাদের সর্বশেষ প্রতিবেদনে বলেছে, ভারতীয় গণতন্ত্রকে 'শোষণ' করার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক পাক জামায়াত ফ্রন্ট দ্বারা মানবাধিকার ইস্যুগুলোকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে।   

সংগঠনটি বলেছে, অধিকার ও স্বাধীনতার নামে ভারতীয় ফল্টলাইনকে কাজে লাগাতে ওই জামায়াত ফ্রন্ট তৈরি করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতীয়রা তাদের সত্যতা না জেনেই তাদের প্রাধান্য দেয়। এরকম একটি ফ্রন্ট হলো 'জাস্টিস ফর অল' (জেএফএ) বা সবার জন্য ন্যায়বিচার।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, জাস্টিস ফর অল (জেএফএ) হলো একটি শিকাগো-ভিত্তিক সংস্থা। এটি ১৯৯৯ সালে আবদুল মালিক মুজাহিদ নামে একজন পাক নাগরিক প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি জামিয়াত-ই-তালাবার (জামাত-ই-ইসলামী পাকিস্তানের যুব শাখা) সাবেক প্রধান ছিলেন (১৯৭৫-১৯৭৭)।   

প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, জেএফএ ভারত-বিরোধী বর্ণনার কেন্দ্রস্থল। ভারতীয় ফল্টলাইনগুলোকে কাজে লাগানোর জন্য কার্যত সমস্ত ভারতীয় অধিকার ইস্যুগুলোর নামে একাধিক ফ্রন্ট তৈরি করে। এর মূল উদ্দেশ্য হল 'ফ্যাসিবাদ, ইসলামোফোবিয়া এবং গণহত্যার লেবেল দিয়ে ভারতকে আঁকা।' 

জেএফএ আরেকটি ফ্রন্ট 'সাউন্ড ভিশন' দ্বারা সমর্থিত। এটি ১৯৮৮ সালে মুজাহিদ দ্বারা প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল যখন তিনি ইসলামিক সার্কেল অফ নর্থ আমেরিকা (আইসিএনএ) এর সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। রিপোর্ট অনুসারে আইসিএনএ পশ্চিমের জামাত শাখা। 

 

 

 

 

ইত্তেফাক/এসআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ইমরান খানের আজাদি মার্চে পাক সরকারের খরচ ১৪৯ মিলিয়ন রুপি

চুক্তি নয়, রক্তপাত এড়াতেই আজাদি মার্চ বাতিল করেছি: ইমরান খান

পাকিস্তানে পেট্রোল ও ডিজেলের দাম বাড়ার রেকর্ড

বিদ্যুৎ বিভ্রাটে অতিষ্ঠ, গিলগিট বালতিস্তানে বিক্ষোভ 

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

পানিবণ্টন: সিন্ধু ৪৬ শতাংশ, বেলুচিস্তান ৮৪ শতাংশ বঞ্চিত 

গাড়ি দুর্ঘটনায় লাদাখে ৭ ভারতীয় সেনা নিহত 

মমতার লক্ষ্য এবার বিশ্ববিদ্যালয়

হিন্দি উপন্যাসের জন্য প্রথম বুকার পুরস্কার