শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পাঁচ দিন ভালো খেলাই মূল চ্যালেঞ্জ

আপডেট : ১১ মে ২০২২, ১৩:৫০

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের টেস্ট ম্যাচ দুইটি কীভাবে নির্বিঘ্ন করা যায়, সেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ব্যাটিং কোচ জেমি সিডন্স। সাগরিকার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টেস্ট প্রস্ত্ততির দ্বিতীয় দিনেও ব্যাটারদের নিয়ে নেটে ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করলেন এই অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটিং কোচ।

দুপুর ২টার সময় অনুশীলন শুরুর কথা থাকলেও মুশফিকুর রহিম ও আরও কয়েক জন নির্ধারিত সময়ের পূর্বে নেটে ব্যাটিংয়ে নেমে পড়েছিলেন। মুশফিকের পাশাপাশি তামিম, মুমিনুল নেটে বেশ ঘাম ঝরান। আবার বোলাররাও কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন নেটে বোলিং করে। গতকাল সাগরিকার আকাশে রোদে মেঘের লুকোচুরি চললেও অনুশীলনে ক্রিকেটাররা ছিলেন বেশ চনমনে। ঘূর্ণিঝড় আসানির প্রভাবে বৃষ্টির পর কোমল আবহাওয়ায় স্বাচ্ছন্দে অনুশীলন করলেন মুমিনুল-মুশফিকরা।

দক্ষিণ আফ্রিকায় বাজে পারফরম্যান্স করলেও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ জয়ের আশায় খেলবে বাংলাদেশ দল। হোম কন্ডিশন হলেও দুই টেস্টের সিরিজ অবশ্য জেতাটা সহজ হবে না মনে করেন বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচ জেমি সিডন্স। গতকাল অনুশীলনের পর সাগরিকায় সংবাদ সম্মেলনে এই অস্ট্রেলিয়ান বলেছেন, ‘শ্রীলঙ্কা খুব ভালো বোলিং সাইড। ওদের ব্যাটিংও অনেক ভালো। তাই আমাদেরকে নিজেদের সেরা খেলা খেলতে হবে টেস্ট ম্যাচ জিততে। আমাদের লক্ষ্য অবশ্যই ঘরের মাঠে এ দুই টেস্ট জেতা। আমরা সবসময় ঘরের মাঠে সব ম্যাচ জিততে চাই।’

সিডন্সের মতে, পাঁচ দিন ভালো খেলার চ্যালেঞ্জটা নিতে হবে বাংলাদেশকে। কারণ অতীতেও অনেক বার ম্যাচের চার দিন দাপট দেখিয়ে শেষদিনের ব্যর্থতায় হেরে গেছে টাইগাররা। চট্টগ্রামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্টে এমন অভিজ্ঞতাই হয়েছিল মুমিনুলদের। সিডন্স বলেছেন, ‘বাস্তবতা হলো সবসময় ঘরের মাঠে জেতা হয় না। আমরা ভালো ক্রিকেট খেলতে চাই। আমরা এই দলের বিপক্ষে আত্মবিশ্বাসী। চট্টগ্রামে ভালো ক্রিকেট খেলেছি আমরা। তো এটিই আমাদের চ্যালেঞ্জ যে, পাঁচ দিনই যেন আমরা ভালো খেলি। পরে দেখা যাবে শেষে কী হয়।’

দক্ষিণ আফ্রিকায় বাজে ব্যাটিং করলেও ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে রান করায় ব্যাটারদের আত্মবিশ্বাস ফিরেছে বলে মনে করেন সিডন্স। তাই টেস্টে ভালো কিছুর আশাই করছেন তিনি। গতকাল সিডন্স বলেছেন, ‘পুরোনো স্মৃতির কথা ভুলে যেতে চাই। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নতুন করে শুরু করাটা অত্যন্ত জরুরি। আমরা সে পথে হাঁটছি। টেস্ট প্রস্ত্ততির আগে ক্রিকেটারেরা প্রিমিয়ার লিগে খেলেছে। টেস্ট দলে যাদের ডাকা হয়েছে, তাদের প্রত্যেকে ভালো পারফরম্যান্স করেছে। সে যোগ্যতার নিরিখে তারা দলে জায়গা করে নিয়েছে। আমার প্রত্যাশা টেস্ট সিরিজে ক্রিকেটারেরা ভালো করবে।’ রান খরায় থাকা মুশফিক-মুমিনুল বেশ চাপে আছেন। চট্টগ্রাম টেস্টেই তাদের রানে দেখতে চান সিডন্স।

ইত্তেফাক/টিএ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সাফল্য পেতে আত্মবিশ্বাসী ম্যাককালাম

আইপিএল

১৪ বছর পর আইপিএলের ফাইনালে রাজস্থান

টেস্ট দলে কয়েকজনকে বাদ দেওয়ার ইঙ্গিত দিলেন ডমিঙ্গো

ব্যাটারদের ব্যর্থতায় বাংলাদেশের হার

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

শ্রীলঙ্কার দরকার ২৯ রান, হাতে ১০ উইকেট

সাকিব-লিটনকে হারিয়ে বিপদে বাংলাদেশ

লিড নিয়ে লাঞ্চে বাংলাদেশ

‘ম্যাচ বাঁচানো কঠিন’