শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

জৌকুড়া-নাজিরগঞ্জ রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ

আপডেট : ১৯ জুন ২০২২, ১৫:৫২

পদ্মার পানিতে ফেরি ঘাট তলিয়ে যাওয়ার রাজবাড়ীর জৌকুড়া-নাজিরগঞ্জ নৌরুটে তিনদিন ধরে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন ওই নৌরুটে চলাচলকারী মানুষ।

জৌকুড়া ঘাট সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে জৌকুড়া-নাজিরগঞ্জ নৌরুটের জৌকুড়া ঘাট প্রান্তে নতুন একটি ঘাট স্থাপন করা হয়। পদ্মা নদীর পানি বৃদ্ধির কারণে সেই ঘাটটি তুলিয়ে গেছে। এই নৌরুটে দুটি ইউটিলিটি (ছোট) ফেরি রয়েছে। ফেরি ছাড়াও দুটি লঞ্চ ও কয়েকটি ট্রলার চলাচল করে।

জানা গেছে, দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলার সঙ্গে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলার যাতায়াতের সহজ পথ হলো এই নৌরুট। এই নৌরুট ব্যবহার করলে অন্তত ১৮০ কিলোমিটার পথ সাশ্রয় হয় যাত্রীবাহী বাস ও পণ্যবাহী যানবাহন চালকদের। নৌরুট দিয়ে প্রতিদিন রাজবাড়ী, ফরিদপুর, মাদারীপুর, পিরোজপুর, বরিশাল, গোপালগঞ্জসহ আশপাশের জেলাগুলোর সব পরিবহন ও যানবাহন পাবনা, সিরাজগঞ্জ, রাজশাহী, রংপুর, নাটোরসহ বিভিন্ন জেলায় যাতায়াত করে।

 

ট্রলারে নদী পার হওয়া মোটরসাইকেলচালক মো. রাব্বী বিশ্বাস, আরোহী সুজন কর্মকার, স্কুল শিক্ষিকা জান্নাতুল ফেরদৌসীসহ একাধিক ব্যক্তি বলেন, আমরা প্রতিনিয়তই এ নৌরুটে রাজবাড়ী-নাজিরগঞ্জ যাতায়াত করি। ফেরি বন্ধ থাকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ইঞ্জিন চালিত ট্রলারে নদী পার হতে বাধ্য হচ্ছি।

রাজবাড়ীর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. নওয়াজিস রহমান বিশ্বাস জানান, অ্যাপ্রোচ সড়ক পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে ২ নং ফেরিঘাট দিয়ে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। অ্যাপ্রোচ সড়কের কাজ আগামী সোমবার নাগাদ শেষ হলে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হবে। যদি পানি বৃদ্ধি না পায় তাহলে ফেরি চলাচল করতে ব্যাহত হবে।

ইত্তেফাক/ইউবি