শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ভয়ংকর বন্যায় বেহাল চীন

আপডেট : ২৩ জুন ২০২২, ১৪:৫৯

প্রবল বৃষ্টির পর দক্ষিণ চীন বন্যায় বেহাল। কয়েক লাখ মানুষকে নিরাপদ জায়গায় নেওয়া হয়েছে। ভেসে গেছে গাড়ি। বহু বাড়ি ভেঙে পড়েছে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ডয়েচে ভেলে।

চীনের সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা গুয়াংডং-এ বৃষ্টির পর বন্যায় রাস্তা ভেসে গেছে, গাড়ি ভেসেছে, বাড়ি ভেঙে ভেসে গেছে।

বন্যার জল বাড়তে থাকায় দুটি প্রদেশে বিপদসংকেত দেওয়া হয়েছে বলে সংবাদসংস্থা শিনহুয়া জানিয়েছে। গুয়াংডংয়ে পাঁচ লাখের বেশি মানুষকে অন্যত্র সরানো হয়েছে। আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ ২৬ কোটি ১০ লাখ ডলার।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আগামী কয়েকদিন বৃষ্টি হতে পারে। তাহলে পরিস্থিতি আরো খারাপ হবে। আপাতত ওই অঞ্চলে স্কুল, অফিস, যানবাহন চলাচল বন্ধ আছে।

জলসম্পদ মন্ত্রণালয় বুধবার (২২ জুন) জানিয়েছে, চীনের ১১৩টি নদীর জল আশপাশের এলাকায় ঢুকে পড়েছে। সাতটি নদীতে জল বেড়ে চলেছে। গত রোববার চীনের প্রশাসন রেড অ্যালার্ট জারি করেছেন। বন্যার পাশাপাশি তারা ভয়ংকর ধসের আশঙ্কাও করছেন। পূর্ব চীনেও ঝড়ের সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে।

বন্যাক্রান্ত এলাকায় মানুষ প্রচুর পরিমাণে খাবার মজুত করে রেখেছেন। ফলে অনেক দোকানেই খাবারের জিনিস পাওয়া যাচ্ছে না। অনেক দোকান থেকে তেল ও চাল উধাও হয়ে গেছে।

সামাজিক মাধ্যমে একজন লিখেছেন, কেউ ভাবেননি, এত দ্রুত শহর ডুবে যাবে। তাই তারা সম্পূর্ণ অপ্রস্তুত ছিলেন। অনেকের বাড়িতে উপযুক্ত পরিমাণে খাবার নেই। সাধারণত বর্ষার সময় মধ্য ও দক্ষিণ চীন ভাসে। কিন্তু এবার অস্বাভাবিক বেশি বৃষ্টি হচ্ছে। সেজন্য নতুন নতুন এলাকা ভেসেছে।

ইত্তেফাক/টিআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

চীনে মিললো নতুন ভাইরাস, আক্রান্ত ৩৫

সৌদি সফরে যাচ্ছেন চীনা প্রেসিডেন্ট

এশিয়ার সবচেয়ে ধনী নারী যেভাবে তার অর্ধেক সম্পদ খোয়ালেন

ইউক্রেন সংঘাতের মূল কারণ যুক্তরাষ্ট্র: চীন 

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

চীনে আবারও লকডাউন: আটকা পড়েছে ৮০ হাজার পর্যটক 

তাইওয়ান সরকারের ওয়েবসাইটে চীনের পতাকা লাগালো হ্যাকাররা

চীন ছাড়তে ৬ লাখেরও বেশি নাগরিকের অনুরোধ

দিল্লির আপত্তি, চীনা জাহাজের আসা পিছিয়ে দিলো কলম্বো