মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মুরাদনগরে নৌকা তৈরির ধুম

আপডেট : ২৬ জুন ২০২২, ০২:৩০

এখন বর্ষাকাল। নদীখাল ও বিলে পানি আর পানি। এ সময় মুরাদনগরসহ পার্শ্ববর্তী ছয় উপজেলার প্রায় লক্ষাধিক মানুষ জীবন-জীবিকার প্রয়োজনে ও যাতায়াতের জন্য কোষা নৌকার ওপর নির্ভরশীল থাকেন। ফলে উপজেলায় নৌকা তৈরির ধুম পড়েছে। পাশাপাশি চলছে পুরোনো নৌকা মেরামতের কাজও। নৌকা তৈরির কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন কারিগররা। তবে গত বছরের তুলনায় কাঠের দাম বেশি হওয়ায় এবার নৌকার দাম বেশি বলে জানা গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, উপজেলার বালুছনা, কৈজুরী, কাঠালিয়াকান্দা ও পাঁচকিত্তাসহ বিভিন্ন গ্রামে চলছে নৌকা তৈরি ও মেরামতের কাজ। হাতুড়ি কাঠের খুটখাট ছন্দ ছড়িয়ে পড়েছে চারপাশ। কেউ কাঠ কাটছেন, আবার কেউ নৌকায় আলকাতরা লাগাচ্ছেন। পরিবারের পুরুষ সদস্যদের পাশাপাশি নৌকা তৈরিতে কাজ করছেন নারীরাও। ক্ষিতিশ চন্দ্র সরকার, বুলু সরকার, খোকন সরকার, বিদুল সরকারসহ অন্তত ১০টি পরিবার নৌকা তৈরির পেশায় যুক্ত। অন্যান্য মৌসুমে তারা কাঠমিস্ত্রির পেশায় যুক্ত থাকলেও বর্ষার মৌসুমে তৈরি করেন কাঠের নৌকা। এখানে তৈরি নৌকা উপজেলার রামচন্দ্রপুর, ডুমুরিয়া ও ইলিয়টগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন বাজারে নিয়ে যাওয়া হয় বিক্রির জন্য। প্রতিটি নৌকা ছয় থেকে হাজার টাকা বিক্রি করেন তারা। তা থেকে কোনো কোনো নৌকায় ১ হাজার ২০০ থেকে ১ হাজার ৫০০ টাকা লাভ হয়। 

নৌকার কারিগর ক্ষিতিশ চন্দ্র সরকার বলেন, ৫০ বছর যাবত নৌকা তৈরির কাজ করছি। এখন আগের মতো সারা বছর নৌকার চাহিদা থাকে না। কিন্তু বর্ষার শুরুতে নৌকার চাহিদা বেশি থাকে। ইতিমধ্যে পাঁচটি নৌকা তৈরি করেছি। আরেক কারিগর রাসু সরকার বলেন, আমি ছোটবেলা থেকেই নৌকা তৈরির কাজে জড়িত। এখন জেলেদের মাছ ধরার নৌকা বানানোর কাজ করছি। চাহিদা মোতাবেক ছোট, বড় বিভিন্ন রকম নৌকা বানানো হয়। আকারভেদে এসব নৌকার দাম নির্ধারণ হয়।

কোম্পানীগঞ্জ বদিউল আলম ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ নুরুল হক বলেন, বর্ষার শুরুতে এ উপজেলার নিচু গ্রামে নৌকার চাহিদা বেড়ে যায়। ঐসব এলাকায় যাতায়াত ও জেলেরা মাছ ধরার জন্য নতুন নৌকা কিনে থাকেন। ছোটবেলায় আমরা অনেক নৌকা দেখেছি কিন্তু সেই নৌকার দৃশ্য এখন আর দেখা যায় না। এ নৌকা তৈরির শিল্পটাকে টিকিয়ে রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃ‌র্পক্ষের যথাযথ নজরদারির দরকার।

এ বিষয়ে মুরাদনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ড. আহসানুল আলম সরকার কিশোর বলেন, যারা নৌকা তৈরিতে জড়িত তারা খুবই দরিদ্র। এ উপজেলায় যারা দীর্ঘদিন নৌকা তৈরির পেশায় জড়িত তাদের ব্যাপারে খোঁজখবর নেব। সরকারিভাবে উন্নত প্রশিক্ষণ ও ঋণের ব্যবস্থা করার যদি কোনো সুযোগ থাকে, তাহলে অবশ্যই সহযোগিতা করা হবে।

ইত্তেফাক/ইআ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

দাউদকান্দিতে সড়কের নির্মাণকাজ বন্ধ থাকায় দুর্ভোগ

শিক্ষকের বেত্রাঘাতে মাদ্রাসাছাত্রের ‘মৃত্যু’ 

নির্যাতন সইতে না পেরে স্বামীর গোপনাঙ্গ কাটলেন স্ত্রী!

রাবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম বরকত উল্লাহ 

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

কুমিল্লা প্রেসক্লাবের সভাপতি লুৎফুর, সাধারণ সম্পাদক পারভেজ

কর্মস্থলে ফেরা হলো না ভূমি কর্মকর্তার

'সেদিন আসলে কী ঘটেছিল', ব্যাখ্যা দিলেন সংসদ সদস্য রাজী

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পুকুরে প্রাইভেটকার, প্রাণ গেলো স্ত্রী-শ্যালিকাসহ ভূমি কর্মকর্তার