বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ৩ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশি ট্রান্সজেন্ডার মনিষা মীম

আপডেট : ০৪ জুলাই ২০২২, ০২:১০

ট্রান্সজেন্ডার জনগোষ্ঠীর অধিকার আদায়ে কাজ করে প্রথম ট্রান্সজেন্ডার বাংলাদেশি হিসেবে ব্রিটিশ রাজ পরিবার থেকে সম্মানজনক ‘ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন মনিষা মীম নিপুণ। ১ জুলাই প্রিন্সেস ডায়ানার জন্মদিন উপলক্ষ্যে এই পুরস্কার দেওয়া হয়। মনিষা ছাড়াও এ বছর আরো সাত বাংলাদেশি তরুণ এই পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন।

সামাজিক কাজে অসামান্য অবদান রাখার জন্য মনিষা এর আগে ২০২০ সালে শেখ হাসিনা ইয়ুথ ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ড, ২০২১ সালে জাতিসংঘ আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবক পুরস্কারসহ বেশ কয়েকটি সম্মাননা পেয়েছেন। মনিষা মনে করেন, দেশে ট্রান্সজেন্ডার জনগোষ্ঠীর অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে। তিনি জানান, সুবিধাবঞ্চিত সম্প্রদায়কে কর্মসংস্থানে দক্ষ করে তুলতে মানসম্মত শিক্ষাসেবা, সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা, সমতা, যুব উন্নয়নে প্রশিক্ষণ এবং মানবাধিকার প্রতিষ্ঠাসহ সমাজ পরিবর্তন কাজ করছেন তিনি। এজন্য আরেকজন সহযোগীর সঙ্গে মিলে ২০১৯ সালে গড়ে তোলেন ‘পথচলা ফাউন্ডেশন’। মনিষা মীম নিপুণ বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী পরিচালক।

ইত্তেফাককে মনিষা বলেন, তারা শিক্ষা ক্যাম্পেইন করে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি প্রক্রিয়ায় নারী-পুরুষের পাশাপাশি ট্রান্সজেন্ডার ও লৈঙ্গিক বৈচিত্র্যময় মানুষের নিজের পরিচয় দিয়ে ভর্তি হওয়ার অধিকার আদায় করেন। এই প্রক্রিয়ায় তিনিসহ তার প্রতিষ্ঠানের ১০ জন লিঙ্গ বৈচিত্র্যময় মানুষ নিজের পরিচয় দিয়ে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছেন। বর্তমানে তিনি বিএ স্নাতকে প্রথম বর্ষের দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী।

২০১৬ সালে মনিষা বন্ধু সোশ্যাল ওয়েল ফেয়ারের ‘যুব চেনজ মেকার’ হিসেবে যুক্ত হন। সংগঠনের ‘ইউনাইটেড ফর বডি রাইটস অ্যালায়েন্স বাংলাদেশের’ চট্টগ্রামের নেতৃত্বে ছিলেন তিনি। বন্ধুর ব্যবস্থাপক মেছবা-উ-আহমেদ ইত্তেফাককে জানান, বন্ধুর পক্ষ থেকে যুব নেতৃত্ব বিকাশে বিভিন্ন কর্মশালা ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে মনিষার দক্ষতা বৃদ্ধির প্রয়াস নেওয়া হয়। মনিষা সকল কর্মসূচিতে উত্সাহের সঙ্গে অংশ নিয়ে

ইত্তেফাক/ইআ