মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

রকমারি বেস্টসেলার অ্যাওয়ার্ড পেলো খুদে ঋতুরাজ

আপডেট : ০৭ জুলাই ২০২২, ০০:৩৫

বই কেনার জনপ্রিয় অনলাইন শপ রকমারি ডটকমের উদ্যোগে আয়োজিত ‘নগদ-রকমারি বইমেলা বেস্টসেলার অ্যাওয়ার্ড-২০২২’-এ ছোটদের ফিকশন ক্যাটাগরিতে ‘গুডউইল ফ্যাক্টরি’ বইয়ের জন্য বেস্টসেলার লেখক অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে খুদে লেখক ঋতুরাজ ভৌমিক।

গত ৪ জুলাই বিকালে বাংলা একাডেমির আব্দুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয়।

রকমারি বেস্টসেলার অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠান

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা অর্থনীতিবিদ ড. আকবর আলী খান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এবং বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) এর পরিচালনা বোর্ডের চেয়ারম্যান আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, একুশে পদকপ্রাপ্ত কথাসাহিত্যিক অধ্যাপক আনোয়ারা সৈয়দ হক, বরেণ্য শিক্ষাবিদ ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ, আগামী প্রকাশনার প্রতিষ্ঠাতা ওসমান গণি ও নগদের নির্বাহী পরিচালক সাফায়েত আলম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রকমারি ডটকমের চেয়ারম্যান মাহমুদুল হাসান সোহাগ।

২০২১ সালের অমর একুশে বইমেলার সময় থেকে এ বছরের মার্চ পর্যন্ত রকমারি থেকে সর্বোচ্চ বিক্রিত বইয়ের লেখকদের দেওয়া হয় এ পুরস্কার। ফিকশন, নন ফিকশন, ধর্মীয় ও ক্যারিয়ার- এ চার শাখায় রকমারিতে সর্বোচ্চ বিক্রি হওয়া বইয়ের ১২ জন লেখককে এ পুরস্কার দেওয়া হয়। এছাড়া একইসঙ্গে ৩০টি ক্যাটাগরির ৩০ লেখক ও ৩০টি বইকেও সম্মাননা জানানো হয় এ অনুষ্ঠানে।

খুদে গায়ক ঋতুরাজ ভৌমিককে সবাই চেনে 'বাপকা-বেটা’র 'বেটা' হিসেবে। ঋতুরাজ-এর বয়স যখন পাঁচের কোঠায়, পুরোপুরিভাবে কথা বলতে শেখেনি, তখনই বাবার পাশে বসে জনপ্রিয় সব গান একটু করে মুখস্থ করে ফেলেছিল সে। গানের প্রতি ছেলের আগ্রহ দেখে বাবা শুভাশিস গানের তালিম দিতে লাগলেন। কিছুদিন পর বাবা-ছেলে একসাথে গান গেয়ে ভিডিও আপলোড করলে দ্রুত তা ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। তারপর ৬ বছর বয়স থেকে নিয়মিত বাবার সাথে গান শুরু করে ঋতুরাজ। পরে তার বাবা ‘বাপকা-বেটা’ নামে একটি ফেসবুক ও ইউটিউব চ্যানেল খোলেন। তাদের গানগুলো অল্পসময়েই জনপ্রিয়তা পায়।

গুডউইল ফ্যাক্টরি ঋতুরাজের প্রথম বই। বইটিকে সাজানো হয়েছে ইলাস্ট্রেশনের মাধ্যমে। ঋতুরাজের এমন সাফল্যে বাবা শুভাশিস বলেন, ‘কিছু মুহূর্ত স্বপ্নের মতো। এই মুহূর্তে নিজের আবেগ ধরে রাখা কঠিন। মন্ত্রীর হাত থেকে ঋতুরাজ বেস্টসেলার লেখকের পুরস্কার নিচ্ছে, এটা বাবা হিসেবে আমার জন্য আনন্দের। ঋতুরাজের সাফল্যের সকল কৃতিত্ব ঋতুরাজের মায়ের, তার মা যেভাবে আদর-শাসনে তাকে আগলে রাখে, এই সাফল্য আসলে তার প্রাপ্য।’

ইত্তেফাক/এসটিএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন