বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ১ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

চট্টগ্রাম-দোহাজারী রেলপথে অর্ধশতাধিক অবৈধ ক্রসিং, দুর্ঘটনার আশঙ্কা

আপডেট : ০১ আগস্ট ২০২২, ০৩:৩৩

চট্টগ্রাম-দোহাজারী ৬০ কিলোমিটার রেলপথে ১৩ স্টেশনে অর্ধশতাধিক ঝুঁকিপূর্ণ লেভেল ক্রসিং রয়েছে। ফলে যে কোনো মুহূর্তে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে। বিশেষ করে মীরসরাই ট্রাজেডির পর লেভেল ক্রসিংয়ে যাতায়াতকারীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। প্রতিটি জনপদে যাতায়াতের জন্য রেলপথের ওপর দিয়ে রাস্তা নির্মিত হয়েছে।

চট্টগ্রাম জানালিহাট স্টেশন থেকে শুরু করে পটিয়া-দোহাজারী স্টেশন পর্যন্ত যেসব লেভেল ক্রসিং রয়েছে তা এক প্রকার অরক্ষিত। সব লেভেল ক্রসিংয়ে গেটম্যান নেই। যেখানে আছে সেখানেও গেটম্যানদের বিরুদ্ধে দায়িত্ব পালনে অবহেলার অভিযোগ রয়েছে। গেটম্যানরা ইচ্ছেমতো দায়িত্ব পালন করেন বলে অভিযোগ। এ রুটে বর্তমানে তেলবাহী ওয়াগন ছাড়াও যাত্রীবাহী এক জোড়া ডেমু ট্রেন প্রতিদিন চলাচল করে থাকে। শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে মীরসরাইয়ের বড়তাকিয়া স্টেশন এলাকায় রেলওয়ের গেটম্যানের অবহেলায় ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের ১১ জন যাত্রী নিহত হন।

জানা গেছে, চট্টগ্রাম-দোহাজারী রেললাইন ১৯৩১ সালে চালু হয়। এর পর থেকে ট্রেন চলাচল শুরু হয়। চট্টগ্রাম-দোহাজারী পর্যন্ত যে সব লেভেল ক্রসিং রয়েছে তা দীর্ঘদিন ধরে ঝুঁকিপূর্ণ। দোহাজারী স্টেশন, হাশিমপুর, খান হাট, কাঞ্চননগর, খরনা, চক্রশালা, পটিয়া, খানমোহনা, ধলঘাট, বেঙ্গুরা, গুমদন্ডী ছাড়াও চট্টগ্রাম জানালিহাট ও ষোলশহর স্টেশন এলাকায় দিন দিন বাড়ছে অবৈধ লেভেল ক্রসিং। এর মধ্যে চন্দনাইশ উপজেলার হাশিমপুর ব্রিক ফিল্ড পয়েন্ট, কসাইপাড়া পয়েন্ট, আব্বাসপাড়া, রৌশন হাট দুইটি পয়েন্ট, বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা, পটিয়ার মুজাফরাবাদ, খরনা স্টেশন, ভাইয়ারদিঘী পয়েন্ট, বাহুলী, দক্ষিণ ভুর্ষি, ডেঙ্গাপাড়া ও বোয়ালখালী উপজেলার কধুরখিলসহ প্রায় অর্ধ শতাধিক পয়েন্টে অবৈধ লেভেল ক্রসিং রয়েছে।

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের পটিয়া উপজেলার কচুয়াই ইউনিয়নের শ্রীমাই এলাকায় প্রতিদিন শ্রীমাই খাল থেকে বালু উত্তোলন করে পিকআপ ও ট্রাকে করে নিয়ে যাওয়া হয়। এই ট্রাক ও পিকআপগুলো রেলপথ পাড়ি দেয় অবৈধ ক্রসিং ধরে। ফলে যে কোনো মুহূর্তে দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে। কাঞ্চননগর স্টেশনের স্টেশন মাস্টার কাঞ্চন ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, রেলের চট্টগ্রাম-দোহাজারী রুটে চন্দনাইশ এলাকায় পাঁচটি অনুমোদিত লেভেল ক্রসিংয়ের মধ্যে তিনটিতে গেটম্যান রয়েছে। যারা অবৈধভাবে রেলপথ ব্যবহার করে চলাচল পথ সৃষ্টি করেছে তাদেরকে একাধিক বার সতর্ক করা হয়েছে। পটিয়া স্টেশনের স্টেশন মাস্টার নেজাম উদ্দিন জানিয়েছেন, অবৈধ লেভেল ক্রসিংয়ের বিষয়ে ইতিমধ্যে ঊর্ধ্বতন কতৃ‌র্পক্ষকে জানানো হয়েছে।

 

ইত্তেফাক/ইআ